শেষ পর্যন্ত প্রভাকে প্রস্তাব দিলেন হিরো আলম

হিরো আলম আবারও আলোচনায়। টেলিফিল্মে অ’ভিনয়, নিজের চলচ্চিত্রে নিজেই নায়ক হওয়ার পর এবার তিনি ‘গায়ক’ হিসেবে হাজির হয়েছেন।সম্প্রতি হিরো আলম জানিয়েছেন তার ‘সাহসী হিরো আলম’ সিনেমায় অ’ভিনয়ের

পাকা কথা দিয়েছিলেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভা ও তাসনুবা তিশা। যদিও দু’জনের কেউই কথা রাখেননি।এ প্রসঙ্গে হিরো আলম বলেন, ‘প্রভা ও তিশাকে আমাদের সিনেমা’র জন্য চূড়ান্ত করা হয়েছিল। আমি সেভাবে

প্রস্তুতিও নিয়েছিলাম। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে দু’জনই ‘করবেন না’ বলে জানিয়েছেন।’ আপনি নিজে তাদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন কিনাএই প্রতিবেদকের এমন প্রশ্নের উত্তরে হিরো আলম বলেন, ‘আমি সরাসরি কথা বলিনি। অন্য একজন

শিল্পীর মাধ্যমে অফার করেছিলাম। তারা প্রথমে কাজ করবেন বলে কথা দিয়েছিলেন। বলেছিলেন শিডিউল পিছিয়ে দিলে কাজটি করবেন। কিন্তু ততদিনে আমি কাজ শুরু করে দিয়েছিলাম। ফলে শিডিউল পেছানো সম্ভব হয়নি।’এ প্রসঙ্গে সিনেমাটির পরিচালক মুকুল নেত্রবাদী জানান, প্রভা এবং তিশার সঙ্গে মৌখিক চুক্তি হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে তারা

অনাগ্রহী হওয়ায় কাগজপত্র করা হয়নি। পরে দু’জনের জায়গায় রাবিনা বৃষ্টি ও নুসরাতকে নেওয়া হয়।উল্লেখ্য, হিরো আলমের সিনেমাটি প্রথমে শুরু করেছিলেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। তিনি একদিন শুটিংওকরেছিলেন। কিন্তু হিরো আলমের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তিনি সিনেমাটি ছেড়ে দেন। তার স্থলাভিষিক্ত হন মুকুল নেত্রবাদী।‘সাহসী হিরো আলম’ মুক্তির পর প্রশংসা অর্জনে ব্যর্থ হয়। এরপর থেকেই নতুন করে সমালোচনা শুরু হয় হিরো আলমকে