বর্ষীয়ান অভিনেতা মনু মুখোপাধ্যায় আর নেই

বছর শেষের আগে ফের ধাক্কা বাংলা বিনোদন জগতে। চলে গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা মনু মুখোপাধ্যায়। অনেক দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা।

দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন হৃদযন্ত্রের সমস্যায়। রোববার সকালে চলে গেলেন জনপ্রিয় এই প্রবীন অভিনেতা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির আর্টিস্ট ফোরামের পক্ষ থেকে প্রবীণ এই অভিনেতার মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে । ১৯৩০ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন মনু মুখোপাধ্যায়। জন্মসূত্রে তার নাম সৌরেন্দ্রনাথ,কিন্তু ডাক নামেই বিখ্যাত তিনি। ১৯৪৬ সালে ভারতী বিদ্যালয় থেকে ম্যাট্রিক পাস করেন, এরপর মহারাজা মণীন্দ্র চন্দ্র কলেজ থেকে আইএ পাস করেন। ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ের প্রতি প্রবল ঝোঁক ছিল তার।

অল্প বয়সে পাড়ার নাটকের দলে মহিলা চরিত্রে অভিনয় করতেন। ১৯৫৭ সালে বিশ্বরূপায় যোগ দেন প্রম্পটার হিসেবে। ক্ষুধা নাটকে ঘটনাচক্রে কালী বন্দোপাধ্যায়ের পরিবর্ত শিল্পী হিসেবে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন মনু মুখোপাধ্যায়। এরপর ধীরে ধীরে উত্তরনের গল্প। হাইকোর্টে কেরানির পদে চাকরি করেতেন, তবে অভিনয় ছিল তার নেশা। নেশার টানে পেশায় ইতি টেনেছিলেন।

মনু মুখোপাধ্যায় প্রথম অভিনীত ছবি মৃণাল সেনের ‘নীল আকাশের নীচে’। সেই ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে ছিলেন কালী বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনিই পরিচালকের কাছে নিয়ে গিয়েছিলেন মনু মুখোপাধ্যায়কে। এরপর বিশ্ববিখ্যাত পরিচালক সত্যজিত রায়, রোন্যান্ড জোফির সাথে কাজ করেছেন প্রয়াত অভিনেতা।

সত্যজিত রায়ের জয় বাবা ফেলুনাথে ভন্ড সাধু মছলিবাবার চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান তিনি। ছোট চরিত্রে অভিনয় করলেও দর্শক মনে নিজের ছাপ রাখতে বরাবর সফল হয়েছেন তিনি। নিজের দক্ষ অভিনয় দিয়ে জনতার মনে দশকের পর দশক ধরে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

সত্যজিতের অশনি সংকেত, গণশত্রুর মতো ছবিতেও অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় এই প্রবীণ অভিনেতা। বাংলা ইন্ডাস্ট্রি মনু মুখোপাধ্যায়ের মতো শক্তিশালী অভিনেতাকে সেভাবে ব্যবহার করেনি, এই অভিযোগ অনেকেই করে থাকেন। দীর্ঘ সময় ক্যামিও চরিত্রে বা পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয়ের পর ২০০৩ সালে পরিচালক অভিজিত্ চৌধুরীর পাতালঘর ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন মনু মুখোপাধ্যায়।

সাম্প্রতিক সময়ে বাকিটা ব্যক্তিগত ছবিতে মনু মুখোপাধ্যায়ের অভিনয় চমকে দিয়েছে দর্শকদের। তিনি অভিনয় করেছেন পরিচালক সায়ন্তন ঘোষালের আলিনগরের গোলোকধাঁধা ছবিতেও।
রুপোলি পর্দার পাশাপাশি ছোটপর্দাতেও নিয়মিত অভিনয় করেছেন তিনি। পৌষ ফাগুনের পালা, সংসার সুখের হয় রমনীর গুণের মতো ধারাবাহিকে মনু মুখোপাধ্যায়কে দেখছেন বাঙালি দর্শক। তার প্রয়াণে শোকস্তব্ধ বাংলা বিনোদন জগত।