কলাগাছ খেতে খেতেই মরে গেল হাতিটি

দীর্ঘদিন সার্কাস বন্ধ থাকায় হাতিটি আটকা পড়েছিল নওগাঁ জেলার ধামুরই হাট এলাকায়। পরশু সেখান থেকে হাতির মাহুত সোহেল হাতিটি নিয়ে রওনা হন।

বুধবার (৯ ডিসেম্বর) তিনি সিরাজগঞ্জের কাজিপুর এলাকায় আসেন এবং দোকানে দোকানে হাতি দিয়ে কিছু টাকা তোলেন। এভাবে চলতে চলতে সন্ধ্যা সামলে কাজিপুর সিমান্ত বাজার এলাকায় হাতিটিকে কলাগাছ খেতে দেন। এ সময় হাতিটি তারস্বরে ডাক দিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। কিছুক্ষণের মধ্যেই হাতির দেহ নিথর হয়ে যায়।

নিকটে বসে চেয়ে চেয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করার ছিল বেচারা মাহুত সোহেল ইসলামের।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরেও হাতিটির মরদেহ পড়ে ছিলো ওখানেই। উৎসুক জনতা সেখানে ভিড় করছেন। এ সময় মাহুত সোহেল জানান, হাতিটির বয়স হয়ে গিয়েছিল। তাছাড়া অন্য কোনো অসুখ ছিল না।

তিনি জানান, হাতিটির মালিককে খবর দেওয়া হয়েছে। উনি সিলেট থেকে রওনা দিয়েছেন।

কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, ঘটনাস্থলে গ্রাম পুলিশ পাঠিয়ে খবর নিয়েছি। মালিক এলেই মৃত্যুর বিষয়ে তার সাথে কথা বলব।