করোনার চেয়েও ভয়ঙ্কর হতে পারে ক্ষুধার মহামারী

A handout picture taken and released on December 10, 2020 by the Turkish presidential press service shows Turkish President Recep Tayyip Erdogan attending a military parade marking Azerbaijan's victory against Armenia in their conflict for control over the disputed Nagorno-Karabakh region, in Baku. (Photo by Mustafa Kamaci / TURKISH PRESIDENTIAL PRESS SERVICE / AFP) / RESTRICTED TO EDITORIAL USE - MANDATORY CREDIT "AFP PHOTO / Turkish presidential press service / Mustafa KAMACI " - NO MARKETING - NO ADVERTISING CAMPAIGNS - DISTRIBUTED AS A SERVICE TO CLIENTS

ক্ষুধার মহামারী করোনাভাইরাস মহামারী থেকে ভয়ঙ্কর হতে পারে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউএফপি)।

অনলাইনে নোবেল শান্তি পুরস্কার প্রদান অনুষ্টানে যুক্ত হয়ে সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক ডেভিড বেসলে এ সতর্কতা দেন । রোমে ডব্লিউএফপি সদরদপ্তর থেকে দেওয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, তাদের প্রয়োজনীয় চাহিদা পুরণে ব্যর্থ হলে ক্ষুধার মহামারী দেখা দেবে, যা কভিড-১৯ এর চেয়েও মারাত্মক হবে।

ডেভিড বেসলে বলেন, দুর্ভিক্ষ একদম আমাদের মানবতার দরজায় কড়া নাড়ছে। আমারা একহয়ে কাজ করলে বিশ্বের ৬৯০ মিলিয়ন মানুষ যারা প্রতি রাতে ক্ষুধা নিয়ে ঘুমাতে যায় তাদের ক্ষুধা দূর করতে পারতাম। কিন্তু আমাদের একটা সমস্যা রয়েছে। আমরা এক হয়ে কাজ করতে পছন্দ করি না। বিভিন্ন যুদ্ধে মানুষকে ক্ষুধার্ত রেখে যুদ্ধ জয়ের চেষ্টা করা হয়।

যুদ্ধ, জলবায়ু পরিবর্তন, রাজনৈতিক ও সামরিক অস্ত্র হিসেবে ক্ষুধার বিস্তার এবং বৈশ্বিক মহামারির কারণে বিশ্বে নতুন করে ২৭০ মিলিয়ন মানুষ দুর্ভিক্ষের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

জাতিসংঘের অধীনে ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত বৃহত্তম এই মানবিক সংস্থা (ডব্লিউএফপি) দুর্ভিক্ষের বিরুদ্ধে লড়াই করছে, বহু লোকের খাদ্য সরবরাহ করছে। ২০১৯ সালে সংস্থাটি ৯৭ মিলিয়ন লোকের জন্য খাদ্য সরবরাহ করেছে।