ধর্ষণের মামলায় ব্রাজিলের তারকা ফুটবলার রবিনহোর ৯ বছরের সাজা বহাল

২০১৩ সালের রবিনহো খেলতেন এসি মিলানে হয়ে। ব্রাজিল জাতীয় দলের এই সদস্য ওই বছর জানুয়ারিতে উপস্থিত হয়েছিলেন মিলানের এক নাইট ক্লাবে।

সেসময় এক আলবেনিয়ান নারী দাবি করেছিলেন, রবিনহো তাকে যৌন নির্যাতন করেছেন। এমন অভিযোগের ভিত্তিকে ২০১৭ সালে রায় সাম্বা ফরোয়ার্ডের বিপক্ষেই যায়। মিলানের আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে নয় বছরের কারাদণ্ডের সাজা দেন। এবার সেই সাজা বহাল রইল।

গেল বৃহস্পতিবার ৩৬ বছর বয়সী রবিনহো ও তার বন্ধু রিকাডোর্ড ফ্যালকাওয়ের বিরুদ্ধে এই রায় দেয়া হয়েছে।
অভিযোগে বলা হয়, ২০১৩ সালের ২২ জানুয়ারি ২৮ বছর বয়সী রবিনহো স্ত্রী ও বন্ধুদের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সিও ক্যাফে নাইটক্লাবে। সেখানে ২৩ বছর বয়সী আলবেনিয়ান নারী নিজের জন্মদিন পালন করছিলেন। এক পর্যায়ে রবিনহো নিজের স্ত্রীকে বাসায় রেখে বন্ধুদের সঙ্গে যোগ দেন। এরপর ওই নারীকে ধর্ষণ করেন।

রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে হয়ে খেলা রবিনহোকে ব্রাজিল দলের ‘জুনিয়র পেলে’ হিসেবে গণ্য করা হতো। ২০০৯ সালেও এক নারীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে আটক হয়েছিলেন। যদিও শেষ পর্যন্ত তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছিল।