সুখে-দুঃখে ৩০ বছর, হাতে হাত রেখে দম্পতির মৃত্যু

মারা যাওয়ার সময়ও অটুট থাকলো বন্ধন। নিশ্বাস থেমে গেলেও শক্ত করে তারা ধরে রেখেছিলেন একে অপরের হাত। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত রবিবার মৃত্যু হয়েছে টেক্সাসের ব্ল্যাকওয়েল দম্পতির।

তাদের ৩০ বছরের দাম্পত্য জীবনের অবসান ঘটেছে। শেষ সময়ে দম্পতির হাতে হাত রেখেছে তাদের সন্তানরা।

জানা গেছে, বেশ কিছু দিন ধরেই হ্যারিস মেথডিস্ট হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে ছিলেন পল ব্ল্যাকওয়েল (৬২) এবং তার স্ত্রী রোজমেরি (৬৫)।

শেষ দুই সপ্তাহ ছিলেন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে। স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই ছিলেন শিক্ষক। টেক্সাসের গ্র্যান্ড প্রেরি অঞ্চলের সদর দপ্তর গ্র্যান্ড প্রেরি ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্কুল ডিস্ট্রিক্টে পড়াতেন।

রোজমেরি ২০ বছর ধরে ট্রাভিস ওয়ার্ল্ড ল্যাঙগুয়েজ অ্যাকাডেমির শিক্ষিকা ছিলেন। পল ফ্যানিন মিডস ছিলেন স্কুলের শরীরশিক্ষা ও ফুটবলের প্রশিক্ষক।

পল ও রোজমেরির ছেলে শন জানায়, ডিসেম্বরে অসুস্থ হওয়ার আগ পর্যন্ত শিক্ষকতা করেছেন তার বাবা-মা। অসুস্থ হওয়ার কিছু দিনের মধ্যেই চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, অবস্থা আশঙ্কাজনক। লাইফ সাপোর্টে রাখা হয় তাদের।

তবে চিকিৎসকরা হাল ছেড়ে দেওয়ার পর শন ও তার ভাই ঠিক করেন, বাঁচানো সম্ভব না-হলে শেষ সময়টুকু অন্তত তাদের বাবা-মা যেন একসঙ্গে থাকতে পারেন।

ভেন্টিলেটর থেকে বাবা-মাকে বের করার আগে পল ও রোজমেরির হাত এক করা হয়। তাদের হাতে হাত রাখেন শন ও তার ভাই। পরে তারা শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।