সমুদ্র সৈকতে বঙ্গবন্ধুর সবচেয়ে বড় ভাস্কর্য

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে তৈরি করা হলো বঙ্গবন্ধুর সর্ববৃহৎ বালু ভাস্কর্য। ভাস্কর্যে বঙ্গবন্ধু তর্জনী উঁচিয়ে আছেন। উপরে লেখা হয়েছে-এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। আর নিচে লেখা হয়েছে, সাগরের চেয়ে বিশাল তুমি।

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ও ব্র্যান্ডিং কক্সবাজারের সহযোগিতায় তৈরি হয় বালু ভাস্কর্য। বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) সৈকতের লাবণী পয়েন্টে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশন ও ১০০টি শান্তির পায়রা উড়িয়ে এ বালু ভাস্কর্যের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সদর আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী ও ব্র্যান্ডিং কক্সবাজারের চেয়ারম্যান কেন্দ্রীয় যুবলীগের সিসি কমিটির সদস্য ইশতিয়াক আহমদ জয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, কুষ্টিয়ায় জাতির পিতার ভাস্কর্য’র যে অবমাননা করা হয়েছে তার প্রতিবাদে দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে বঙ্গবন্ধুর বৃহৎ বালু ভাস্কর্য তৈরি করে কক্সবাজারবাসী এ বার্তা দেশবাসীকে দিতে চায় যে, পৃথিবী যতদিন আছে ততদিন জাতির পিতার অস্তিত্ব থাকবে। একটি মৌলবাদী গোষ্ঠী জাতির জনকের ভাস্কর্য অপসারণের যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে সেই অপচেষ্টা কখনো সফল হবে না। জাতির জনক থাকবে মানুষের হৃদয়ে।

ব্র্যান্ডিং কক্সবাজারের সমন্বয়ক ইশতিয়াক আহমেদ জয় বলেন, ধর্মান্ধ এবং উগ্রবাদিদেরকে একটা বার্তা পৌঁছে দিতে চাই, তারা যেন আর বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য গুঁড়িয়ে কিংবা অপসারণের মতো দৃষ্টান্ত আর না দেখায়।

প্রায় ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে বঙ্গবন্ধুর এই ভাস্কর্য নির্মাণ করেছে ব্র্যান্ডিং কক্সবাজার।