ভিয়েতনামে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে

ভিয়েতনামে সন্তান জন্মের ক্ষেত্রে লৈঙ্গিক ভারসাম্য হারিয়ে যাচ্ছে। অর্থাৎ, সে দেশে ছেলে ও মেয়ে শিশু জন্ম নেওয়ার হার সমান হচ্ছে না। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২০৩৪ সালের মধ্যে দেশটিতে নারীদের তুলনায় পুরুষের সংখ্যা ১৫ লাখ বেড়ে যেতে পারে। ১৪ থেকে ৪৯ বছর বয়সী নারী-পুরুষের মধ্যে এই ভারসাম্যহীনতা তৈরি হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

ভিয়েতনামের জেনারেল স্ট্যাটেস্টিকস অফিস (জিএসও) কর্তৃপক্ষ গত শুক্রবার সাংবাদিকদের জানিয়েছে, ২০৫৯ সালের মধ্যে এই ভারসাম্যহীনতা ২৫ লাখে উন্নীত হতে পারে।

জিএসও বলছে, জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিল কর্তৃপক্ষ দেখেছে, ১৯৮৯ সালে ভিয়েতনামে নারীরা গড়ে ৩.৮ সংখ্যক সন্তানের জন্ম দিতেন। গত বছর নারীরা গড়ে ২.০৯ জন সন্তান জন্ম দিয়েছেন। সে দেশে সন্তান জন্ম দেওয়ার আদর্শ সংখ্যা ২.১।

বর্তমানে একশ কন্যাশিশুর বিপরীতে ১১১.৫ জন ছেলেশিশু জন্ম নিচ্ছে। আর তা দেখে শঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশেষজ্ঞরা।