ভেঙ্গেই যাচ্ছে তমা মির্জার সংসার, ডিভোর্সের সিন্ধান্ত

মিডিয়া পাড়ায় নতুন আলোচনার বিষয় এখন তমা মির্জা ও তার স্বামীর মধ্যকার দ্বন্ধ। যৌতুক, নির্যাতন এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে মামলা করেছেন চিত্রনায়িকা তমা মির্জা।

অন্যদিকে মারধর ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে মামলা করেন এই নায়িকার স্বামী হিশাম চিশতী। মামলা দুটি হয়েছে বাড্ডা থানায়।

স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় চিত্রনায়িকা তমা মির্জা তার স্বামীকে ডিভোর্স দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে কয়েকটি গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ পেয়েছে। ইতোমধ্যে ডিভোর্সের কাগজপত্র তৈরি করেছেন বলে কয়েকটি গণমাধ্যমকে তিনি জানান।

তমা জানান, শিঘ্রই আমার স্বামী হিশাম চিশতিকে তালাকের কাগজপত্র পাঠাবো। আইনজীবীর সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলেছি। এরমধ্যে ডিভোর্সের কাগজপত্র তৈরি করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে তাকে তালাকনামা পাঠিয়ে দেবো। তিনি বলেন, তার সঙ্গে সংসার করা সম্ভব না। আমি এর আগেও তাকে একবার তালাক দিতে চেয়েছি। বিয়ের ছয় মাসের মাথায় তালাক দিতে চেয়েছিলাম। সেই সময় তার পরিবারের সবার অনুরোধে তালাক থেকে সরে আসি। তারপরও সে নিজেকে শুধরাতে পারেনি। তাই আমাকে এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৯ মার্চ পারিবারিক আয়োজনে বাগদান হয় চিত্রনায়িকা তমা মির্জা ও পেশায় ব্যবসায়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান নাগরিক হিশাম চিশতির। একই বছরের মে মাসে তারা বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। কিন্তু দাম্পত্যের জীবনের মাত্র দেড় বছরের মাথায় তাদের সংসারে ভাঙনের সুর। তবে শেষ পর্যন্ত কী হয়, এখন সেটাই দেখার।