২০২১ সাল ঘিরে ৫ ভবিষ্যৎবাণী, মহাপ্রলয়ের শঙ্কা

১৬০০ শতকের এক পদার্থবিদ ও জ্যোতির্বিদের নাম নস্ত্রাদামুস, যিনি তার আশ্চর্য ভবিষ্যৎবাণীর জন্য আজও আলোচনায় আছেন। তার লেখা ‘দি প্রফেসিস’ নামের এক ইংরেজি আছে। বইতে তিনি ভবিষ্যৎবাণী করেছেন।

যার অনেক অংশই পরবর্তী কালে মিলে গিয়েছে। বইতে আগে থেকেই উল্লেখ ছিল, ১৯৩০ এর দশকে জার্মানিতে এক নেতার উত্থানের কথা, যাকে আজ আমরা সকলেই চিনি হিটলার নামে। এমনকি বিশ্ব-অর্থনীতি ভেঙে পড়ার কথাও বইতে উল্লেখ করে গেছেন তিনি। একই সঙ্গে তার বইতে লেখা ছিল এক ভয়ংকর যুদ্ধের কথা। ২০২১ সালের আশপাশের সময়তেও তিনি বেশ কিছু ভবিষ্যৎবাণী করে গেছেন। দেখে নেয়া যাক সে সম্পর্কে কী বলে গিয়েছিলেন তিনি।

২০২১ এ মানুষ জম্বি হয়ে উঠতে পারে!: এই ভবিষ্যৎবাণীতে বিস্ময়কর দাবি হিসেবে বলা আছে, একজন রাশিয়ান বিজ্ঞানী এমন জৈবিক অস্ত্র এবং ভাইরাস বানাবেন যাতে একজন মানুষকে জম্বি করে তুলতে পারে। এভাবে মানুষের প্রজাতি ধ্বংস হয়ে পারে। এক্ষেত্রে এটাকে আমরা মহামারি করোনা ভাইরাসের সঙ্গে তুলনা করতে পারি। কারণ অনেক বিশেষজ্ঞের বিশ্বাস করোনার ভাইরাসটি চীনের ল্যাবে প্রস্তুত হয়েচ্ছে। এখানে নস্ত্রাদামুস সেই কথাই বলেছেন, নাকি আরও নতুন কিছুর কথা বলেছেন, সেটাই দেখার অপেক্ষা।

পৃথিবীতে মহাপ্রলয়: নস্ত্রাদামুসের মতে ২০২১ সালে দুর্ভিক্ষ, ভূমিকম্প, বিভিন্ন রোগ এবং মহামারীর দাপট দেখা যাবে। বইতে বলা হয়েছে ২০২১ সালে এমন একটি দুর্ভিক্ষ আসবে, যা বিশ্ব আগে কখনও মুখোমুখি হয়নি। বিশ্বের জনসংখ্যার একটি বড় অংশ এই ধ্বংসযজ্ঞ থেকে পুনরুদ্ধার পাবে না। সম্পদের জন্য বিশ্বে লড়াই শুরু হবে। এক্ষেত্রে ২০২০ সালে করোনার ভাইরাসের মহামারীকে এর শুরু হিসাবে বিবেচনা করা যেতেই পারে।

২০২১ এ ধূমকেতু টক্কর দিতে পারে: নস্ত্রাদামুসের সেই ভবিষ্যৎ বই জানাচ্ছে, ধূমকেতু পৃথিবীতে আঘাত হানবে যা ভূমিকম্প এবং অনেক প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণ ঘটবে।

২০২১ এ করোনা কী খেল দেখাবে?ঃ ২০২০ সালকে নস্ত্রাদামুস মহামারীর বছর হিসাবে বর্ণনা করেছিলেন। এমতাবস্থায় ২০২১ এ তার পূর্বাভাস উপেক্ষা করা যায় না। ২০২১ এর আগেই ব্রিটেনে করোনার ভাইরাসের নতুন স্ট্রেন পাওয়ার পরে, বিশ্বজুড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে ভয়ের মেঘ।

ক্যালিফোর্নিয়ায় ভূমিকম্প: নস্ত্রাদামুসের করা ভবিষ্যদ্বাণীগুলির মধ্যে এখন অবধি প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও মহামারি সম্পর্কে যথার্থ প্রমাণিত হয়েছে। তার বইতে বলা আছে, ২০২১ সাল বিপজ্জনক হয়ে উঠার সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেয়া যায়না। ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প ঘটার ইঙ্গিত রয়েছে।

যদিও বিজ্ঞানীরা এই ভবিষ্যদ্বাণীগুলিকে খুব বেশি গুরুত্ব দেন না, তবে যারা নস্ত্রাদামুসের বিষয়ে অনেক পড়াশোনা করেন ও বিশ্বাস করেন তারা মনে করছেন আসন্ন বছরটি বিপর্যয় হিসাবে প্রমাণিত হতে পারে। এবার এই দাবিগুলি কতটা সত্যি তার উত্তর দেবে একমাত্র ২০২১।