রোনাল্ডোর জোড়া গোলে জুভেন্টাসের বড় জয়

Cristiano Ronaldo of Juventus celebrates after scoring a goal during the Uefa Champions League 2018/2019 round of 16 second leg football match between Juventus and Atletico Madrid at Juventus stadium, Turin, March, 12, 2019 Foto Image Sport / Insidefoto/Sipa USA

ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর জোড়া গোলে উদিনেসকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে সিরি-এ টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে জুভেন্টাস।

এর মাধ্যমে নতুন বছরটা জয় দিয়ে শুরু করলো বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। একইসাথে মৌসুমের প্রথম পরাজয়ের পরই জয়ের ধারায় ফিরলো আন্দ্রে পিরলোর শিষ্যরা।

মিলানের দুই ক্লাব এখনো টেবিলের শীর্ষ দুই স্থান দখল করে রেখেছে। এক ম্যাচ কম খেলে এসি মিলানের থেকে ১০ পয়েন্ট পিছিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে জুভেন্টাস।

টেবিলের মাঝামাঝিতে অবস্থান করা বেনেভেনটোকে ২-০ গোলে পরাজিত করে ইন্টারের থেকে এক পয়েন্ট এগিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে এসি মিলান। তাদের নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ইন্টার নবাগত ক্রোটনকে ৬-২ গোলে উড়িয়ে দিয়ে দ্বিতীয় স্থান ধরে রেখেছে। মৌসুমে লটারো মার্টিনেজের প্রথম হ্যাটট্রিকে ক্রোটনকে বিধ্বস্ত করেছে ইন্টার।

বেনভেনটোর মাঠে ফ্রাংক কেসির পেনাল্টিতে ১৫ মিনিটে এগিয়ে গিয়েছিল মিলান। রাফায়েল লিয়াওর দুর্দান্ত কার্লিং স্ট্রাইকে বিরতির ঠিক পরপরই মিলানের জয় নিশ্চিত হয়। এর আগে ৩৩ মিনিটে সান্দ্রো টোনালি বেনভেনটো মিডফিল্ডার আর্তার ইওনিতাকে বাজেভাবে ট্যাকেলের অপরাধে লাল কার্ড পেয়ে মাঠের বাইরে চলে গেলে বাকি সময়টা মিলানকে ১০জন নিয়েই খেলতে হয়েছে। মিলানের গোলবারে কাল দারুন ছন্দে ছিলেন গিয়ানলুইগি ডোনারুমা। ৬১ মিনিটে গিয়ানলুকার কাপারির পেনাল্টি রুখে দিয়ে তিনি মিলানকে রক্ষা করেছেন।

মার্চ মাস থেকে টানা ২৭ লিগ ম্যাচে অপরাজিত রয়েছেন মিলান। ম্যাচ শেষে মিলান বস স্টিফানো পিউলি বলেছেন, ‘আমরা একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছি। প্রতিটি ম্যাচে সেই লক্ষ্যই আমাদের সামনে থাকে। প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন আমরা নিজেদের লক্ষ্যে অবিচল থাকি। বুধবার জুভেন্টাসের বিপক্ষে বড় ম্যাচেও সেই ধারা বজায় রাখতে চাই।’

তুরিনের আলিয়াঁজ স্টেডিয়ামে রোনাল্ডো আরো একবার জুভেন্টাসের হয়ে নিজেকে প্রমানের পাশাপাশি দলকে বড় জয় উপহার দিয়েছেন। উভয় অর্ধে দুই গোল করার পাশাপাশি ফেডেরিকো চিয়েসাকে দিয়ে বিরতির পর একটি গোল করিয়েছেন। এ নিয়ে লিগে তার গোলসংখ্যা দাঁড়লো ১৪। ইনজুরি টাইমে পাওলো দিবালা দলের হয়ে চতুর্থ গোলটি করেছেন। শীতকালীন বিরতির আগে ফিওরেন্টিনার কাছে ৩-০ গোলে পরাজিত হয়েছিল আন্দ্রে পিরলোর দল। নতুন বছরে শুরুটা অন্তত দাপুটের সাথেই হলো তুরিনের জায়ান্টরদের।

পিরলো বলেছেন, ‘এটা জুভেন্টাসের সেরা খেলা ছিলনা। কারন আমরা একটি বাজে পরাজয়ের স্মৃতি নিয়ে মাঠে নেমেছিলাম। যে কারনে শুরু থেকেই বেশ নার্ভাস ছিল ছেলেরা। ধীরে ধীরে ম্যাচের আবহ বুঝতে পেরে আমরা আক্রমনাত্মক হয়ে উঠি।’

এ দিকে সান সিরোতে মার্টিনেজ ও রোমেলু লুকাকুর যৌথ প্রচেষ্টায় লিগে টানা অষ্টম জয় নিশ্চিত করেছেন ইন্টার। যদিও বছরের শুরুতেই এত বড় জয় কিছুটা হলেও ইন্টারকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাবে। ম্যাচের ছয় গোলের মধ্যে পাঁচটিতেই ছিল এই দুই স্ট্রাইকারের অবদান। ম্যাচের ১২ মিনিটে নিকোলো জানেলাত্তোর গোলে এগিয়ে গিয়েছিল সিরি-এ লিগের তলানির দল ক্রোটন। লিগে সম্ভবত এত বাজে একটি আক্রমন থেকে গোলের লজ্জায় পড়তে হয়নি কোন দলকে।

আট মিনিট পর লুকাকুর ক্রস থেকে এ্যান্টোনিও কন্টের দলকে সমতায় ফেরান মার্টিনেজ। ৩১ মিনিটে মার্টিনেজের শট আটকাতে গিয়ে নিজের জালেই বল ঠেলে দেন ক্রোটন ডিফেন্ডার লুকা মারোনো। ছয় মিনিট পর আরতুরো ভিদালের উপহার দেয়া পেনাল্টি থেকে ম্যাচে সমতা ফেরান ভøাদিমির গোলেমিচ। এই পেনাল্টির পরে বিরতির সময় চিলিয়ান ভিদালের পরিবর্তে স্টিফানো সেন্সিকে মাঠে নামান।

৫৭ মিনিটে মার্সেলো ব্রোজোভিচের থ্রো থেকে লুকাকুর ব্যাক-হিলে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মার্টিনেজ নিজের দ্বিতীয় গোল করেন। ৬৪ মিনিটে লুকাকু ইন্টারের হয়ে ক্যারিয়ারের ৫০তম গোল পূরণ করেন। ৭৮ মিনিটে মার্টিনেজের হ্যাটট্রিক পূরণের পর ম্যাচ শেষের তিন মিনিট আগে আচরাফ হাকিমি ইন্টারের হয়ে শেষ গোলটি করেন।

অধিনায়ক এডিন জেকোর একমাত্র গোলে সাবেক রোমা কোচ ক্লডিও রানিয়েরির সাম্পদোরিয়াকে ১-০ গোলে পরাজিত করে তৃতীয় স্থান ধরে রেখেছে রোমা। ইন্টারের থেকে রোমা ৬ পয়েন্ট পিছিয়ে সিরি-এ টেবিলের তৃতীয় স্থানে রয়েছে। স্তাদিও অলিম্পিকোতে ম্যাচের ৭২ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন জেকো।

নতুন বছরে জয় পেয়েছে নাপোলিও। কালিয়ারিকে ৪-১ গোলে হারিয়ে রোমার থেকে দুই পয়েন্ট পিছিয়ে টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে নাপোলি। পিওতর জিয়েলিনিস্কি দুই গোল করেছেন। বাকি দুই গোল করেছেন হার্ভিং লোজানো ও লোরেঞ্জো ইনসিগনে।

ইউরোপীয়ান দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর ম্যাচটিতে অবশ্য দাপট দেখিয়েছে আটালান্টা। কলম্বিয়ান ডুভান জাপাটার দুই গোলে সাসুলোকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে আটালান্টা। এই জয়ের পরেও অবশ্য সাসুলোকে টপকাতে পারেনি আটালান্টা। ষষ্ঠ স্থানে থাকা সাসুলোর থেকে এক পয়েন্ট পিছিয়ে আটালান্টার অবস্থান সপ্তম।