দি’হা’নের বাসার সিসিটিভিতে যা পাওয়া গেল

মা’স্টার’মাইন্ড স্কু’লছা’ত্রীর মৃ’ত্যু’র ঘট’নায় গ্রে’ফতার করা হয়েছে অ’ভিযু’ক্ত দি’হা’নকে। আ’ট’ক করে পু’লি’শ হে’ফা’জ’তে নেওয়া হয়েছে দি’হা’নের ক’লাবাগান বা’সার দা’রোয়ান দুলা’লকে। উ’দ্ধার করা হয়েছে বাসা’টির সি’সি ক্যা’মে’রার ফু’টেজ।

সি’সি ক্যা’মেরা’র ফু’টেজ বি’শ্লেষণ ক’রে ‘খা যা’য়, বা’সাটি’তে প্রায়’ দে’ড় ঘ’ণ্টা ‘অব’স্থা’ন ক’রেছিল আ’নু’শ’কা। এ সময় রহস্য’জনক গতি’বি’ধির উপ’স্থি’তি পাও’য়া গে’ছে’ তি’ন ব্য’ক্তি’র। পু’লি’শে ধা’র’ণা, স’র্ব’গ্রা’সী মা’দ’কে’র পরিণতিতেই এমন ঘটনা ঘটতে পারে।

সি’সি’টি’ভি’র ফু’টে’জে দে’খা যা’য়, ৭ জানুয়ারি দুপুর ১২টা ১২ মিনিটে কলাবাগানে দিহানের বা’সা’র ‘সিঁ’ড়ি’ঘ’রের দি’কে যা’য় আ’নু’শ’কা। দুপুর একটার দিকে বাসার সামনে র’হ’স্যজন’ক গতিবিধির দেখা মেলে তিন ব্য’ক্তি’র। প্রায় দেড় ঘণ্টা পর দুপুর ১টা ৩৬ মিনিটে বাসা থেকে বের হয় দি’হা’নে’র গাড়ি।

ডিএমপির নিউমার্কেট জোনের এসি আবুল হাসান বলেন, ঘটনাস্থ’লের আশ’পাশের পুরো এলাকার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ আমরা বিশ্লেষণ করে দেখেছি। পাশাপাশি দি’হা’নের ওই তিন বন্ধুর মোবাইল নম্বর ট্র্যা’ক করে ঘটনার সময় তারা কোথায় ছিল সেই লোকেশন বের করা হয়েছে। সবকিছু মিলিয়ে তাদের সংশ্লিষ্টতা না পাওয়ায় আমরা ছেড়ে দিয়েছি। তবে তারা নজরদারির বাইরে নয়। প্রয়োজনে তাদের আবার হেফাজতে নেওয়া হবে।

এদিকে ডিএমপির রমনা বিভাগের ডিসি মো. সাজ্জাদুর রহমান বলেন, ঘটনাটির সত্যতা যাচাইয়ে আমরা প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে দারোয়ানকে হেফাজতে নিয়েছি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার কাছে পাওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করে পরে জানানো হবে। এছাড়া আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী দু-এক দিনের মধ্যে দিহানের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হবে।