১০ টাকার ভাড়া জন্য দুই গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ৩০

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার শিবপুর গ্রামে ব্যাটারী চালিত ইজিবাইকের ভাড়া নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ ৩০জন আহত হয়েছে।

আজ রবিবার (১৭ জানুয়ারী) সকালে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩১ রাউন্ড বুলেট ছোঁড়েন। সংঘর্ষে আহতদেরকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল ও লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল শনিবার রাতে অলি মিয়া নামে এক চালক ৬০ টাকা টমটম ভাড়া চাইলে ইসরাফিল নামে এক যাত্রী ৫০ টাকা দিতে রাজি হয়। এই নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়।

পরে ইসরাফিলকে মারধর করে চালক অলি মিয়া। এই ঘটনার জের ধরে টমটম চালকের পক্ষে ফেরদৌস হাজী ও ইসরাফিলের পক্ষে আফাজ উদ্দিনের লোকজন রবিবার সকালে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে লাখাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৩১ রাউন্ড বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন।

দু গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশের পরিদর্শক মোবারক (৪২), উপপরিদর্শক বাবুল সিংহ(৫০), উপপরিদর্শক নুর সুলেমান(৩৮), সহকারী উপপরিদর্শক নুর উদ্দিন(৪৮), নাঈম (২২), পুলিশের কনস্টেবল সাকিব(২২), শামীম(২৪), আলমগীর(২৩), রাহুল(২৩), সফিউদ্দিন(৩৮), নাজিম উদ্দিন(২৮), মহিন উদ্দিনসহ ৩০জন আহত হয়।

উল্লেখ্য, লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুল ইসলাম জানান, ৩১ রাউন্ড বুলেট নিক্ষেপের পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সূত্রঃ কালের কন্ঠ