খেলতে গিয়ে হরিণকে ‘বন্ধু’ বানিয়ে ঘরে ফিরল শিশুটি!

চার বছর বয়সী শিশু ডমিনিক। মাকে বলে বাইরে খেলতে গিয়েছিল। যখন ফিরল তখন তার সঙ্গে আরেকটি হরিণের বাচ্চা। হ্যাঁ, হরিণশাবক। ঘরে ঢুকেই মাকে দেখাল তার ছোট্ট হরিণ বন্ধুটিকে। অদ্ভুত এক মায়াভরা চোখে তাকিয়ে আছে তাদের দিকে।

ফক্স-৪০-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ছবিটি ইন্টারনেট ছাড়তেই রীতিমতো ভাইরাল। খবর এনডিটিভির।

ব্রাউন পরিবারটি ভার্জিনিয়ার ম্যাসানুটেন রিসোর্টে ছুটি কাটাতে গিয়েছিল। সেখানে গিয়ে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে ছোট্ট শিশুটি। মা স্তেফানি ব্রাউন বলেন, মঙ্গলবার তিনি ফ্রিজ থেকে জিনিসপত্র বের করছিলেন। হঠাৎ পায়ের শব্দ শুনে ঘাড় ফিরিয়ে চার বছরে ডমিনিককে দরজায় এসে দাঁড়াতে দেখেন। পরক্ষণেই যা দেখেন, তাতে তার চক্ষুস্থির। ডমিনিকের পেছন দাঁড়িয়ে একটি শিশু হরিণ। হরিণশিশুটিকে একটুও ভীত মনে হয়নি। মনে হয়েছে, ডমিনিকের সঙ্গে আসতে পেরে সে বেজায় খুশি হয়েছে।

ডব্লিউবিটিভির সঙ্গে আলাপকালে স্তেফানি বলেন, আমি আমার বাচ্চাটির সঙ্গে হরিণের বাচ্চাটিকে দেখলাম। তারা দু’জনেই দরজায় দাঁড়িয়ে আছে। আমি প্রথমে রীতিমতো হতভম্ব হয়ে পড়লাম। এক মুহূর্তের জন্য বুঝতে পারলাম না আমার ঠিক কী করা উচিত।

অবশ্য এর পরই তিনি ঘরে ঢুকে মোবাইল ফোনটি নিয়ে এসে টপাটপ কয়েকটি ছবি তুলে ফেললেন বাচ্চা দুটোর। এরপর ফেসবুকে পোস্ট করতেই ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধমে ভাইরাল হয়ে যায়। ২৮ হাজার শেয়ার হয়। মন্তব্যও আসে হাজার হাজার।