ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া কমাতে যা করবেন

ত্বক, চুল ও নখে সুস্বাস্থ্যের প্রতিফলন দেখা যায়। পরিবেশের পরিবর্তন, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রার কারণে চেহারায় বয়সের ছাপ ফুটে ওঠে।

তাই তো সময় থাকতে থাকতে ব্যবস্থা নিন, না হলে কিন্তু আপনার ত্বক বুড়িয়ে যেতে সময় নেবে না। সাধারণত ৩০ বছরের পর থেকেই মুখে বলিরেখা দেখা দিতে শুরু করে। তবে আপনি চাইলেই চেহারায় ধরে রাখতে পারেন তারুণ্য। অর্থাৎ বয়স বাড়লেও তার ছাপ পড়বে না চেহারায়। সেজন্য পার্লারে গিয়ে কাড়িকাড়ি টাকা খরচও করতে হবে না। এছাড়া টেনশন, অবসাদ, সারাদিনে প্রচুর পরিশ্রম, বায়ুদূষণসহ নানাবিধ কারণে ত্বকের ক্ষতি হচ্ছে। তাই ত্বকের প্রতি যত্নশীল হওয়া প্রযোজন।

আসুন জেনে নিই ত্বকের বয়সের ছাপ কমাতে করণীয়-

১. সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি করে। প্রতিদিন ঘর থেকে বের হওয়ার আগে সানস্ক্রিনের ব্যবহার করুন। ঘরে ফিরে ত্বক পরিষ্কার করুন ও ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

২. টেনশন, অবসাদ, সারাদিনের কাজের চাপে ত্বকে কালচে ছোপ ও হালকা দাগের উপদ্রব। তাই চাপমুক্ত থাকার চেষ্টা করুন।

৩. খাবারের প্রতিও যত্ন নিতে হবে। খাবারের তালিকায় রাখুন ভিটামিন সি।

৪. মৌসুমি ফল, শাকসবজি ছাড়াও ডায়েটে থাকে ভিটামিন এ, ই আর সি। জাঙ্ক ও মিষ্টি খাবার এড়িয়ে চলুন।

৫. সপ্তাহে একবার ত্বক পরিষ্কার করুন। চিনিগুঁড়ো আর ক্রিম বা দুধের সর দিয়েও বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারেন স্ক্রাব।

৬. তারুণ্য ধরে রাখতে প্রতিদিন প্রচুর পানি পান করুন। ইউরিনের সঙ্গে বের হয়ে যাবে শরীরে জমে থাকা দূষণ। আর ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকে।

৭. ধূমপান করবেন না। বিষাক্ত ধোঁয়ায় শরীরের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত ত্বকও।