কারিশমার সঙ্গে প্রেম ভেঙে বিপদে পড়েছিলেন অজয়

বলিউডে একসঙ্গে কাজ করার সুবাদে একে অপরের প্রেমে পড়েছিলেন কারিশমা-অজয়। সে সময় তাদের জুটিটি ছিল পুরো হিট। তবে শেষ পর্যন্ত কারিশমার সঙ্গে প্রেম ভেঙে যাওয়ায় চরম বিপদে পড়তে হয়েছিল অজয় দেবগনকে।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইটিনের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

কারিশমা কাপুর ও অজয় দেবগন একটা সময়ে বলিউডের হিট জুটি ছিলেন। তাদের একের পর এক ছবি হিট হচ্ছিল সে সময়। জিগর সংগ্রাম-এর মতো একের পর এক হিট ছবি সে সময় রিলিজ হয়েছে এই জুটির। আর একসঙ্গে কাজ করতে গিয়েই তারা একে অপরের প্রেমে পড়েন। সে সময়ে কারিশমা কাপুরের জীবনে অভিষেক বচ্চন আসেননি।

১৯৯৪ সালে ‘সুহাগ’ ছবির শ্যুটিং থেকেই একে অপরের মধ্যে মনোমালিন্য শুরু হয়। এমনকি এই ছবির শ্যুটিংয়ে তারা নিজেদের মধ্যে কথা বন্ধ করে দেন। শুধু মাত্র সংলাপ বলার জন্য আসতেন কারিশমা। বাকি সময়ে তিনি ঘরে বসে থাকতেন।

সুহাগ ছবিতে অজয় কারিশমা ছাড়া অভিনয় করেছিলেন অক্ষয় কুমার ও নাগমা। তবে প্রধান ভূমিকায় অজয়-কারিশমা থাকলেও এই ছবির সব থেকে জনপ্রিয় গান, ‘গড়ে গড়ে মুখরে পে কালা কালা চশমা’-থেকে বাদ গিয়েছিলেন অজয়। তাও কারিশমার জন্য।

এই গানে চারজনকেই দেখানোর কথা ছিল। তবে এই গান শ্যুটিংয়ের আগে তাদের ঝামেলা এমন জায়গায় পৌঁছায় যে অজয়ের সঙ্গে গানের শ্যুটিং করতে না করে দেন কারিশমা। যেহেতু তিনি স্টারকিড তাই বিশেষ কিছু বলতে পারেননি পরিচালক। আর এরপর থেকে আর কখনও একসঙ্গে কাজ করেননি তারা।

শোনা যায় কারিশমাই ছেড়েছিলেন অজয়কে। অজয় এরপর বলিউডে বেশ কয়েকটা ছবিও হাতছাড়া করেন। বলা হয় অজয়ের কাজ চলে যাওয়ার পিছনেও কারিশমার হাত ছিল। যদিও এর জন্য কাজল ও কারিশমার সম্পর্ক কখনও খারাপ হয়নি। তাদের বেশ ভালো সম্পর্ক।