বিশ্বকে তাক লাগিয়ে চালকবিহীন ইলেকট্রিক বাস নামালো তুরস্ক

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক- এবার নিজেদের তৈরি চালকবিহীন ইলেকট্রিক বাসের পরীক্ষা চালিয়ে বিশ্বকে চমক লাগিয়ে দিল তুরস্ক।

দেশটির গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহ জানায়, সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) দেশটির রাষ্ট্রপতি রিসেপ তাইপ এরদোগানের উপস্থিতিতে এ পরীক্ষা চালানো হয়। এ সময় তুরস্কের শিল্প ও প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তফা বারানকও উপস্থিত ছিলেন।

আতাক ইলেকট্রিক নামের বাসটিতে বিএমডব্লিউ ২২০-কেডব্লিউএইচ লি-আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। দুই চার্জের মাঝামাঝি সময়ে এটি ৩০০ কিলোমিটার (১৮৬ দশমিক ৪ মাইল) পর্যন্ত রেঞ্জ অতিক্রমে সক্ষম। সরাসরি কারেন্টে চার্জ হতে সময় লাগবে তিন ঘণ্টা।

২৭ দশমিক ২ ফুট (৮ দশমিক ৩ মিটার) দৈর্ঘ্যের বাসটিতে ৫০ যাত্রী বসতে পারবেন। গাড়ি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কারসান জানিয়েছে, তারা এরই মধ্যে ব্যাপকভিত্তিক উৎপাদন শুরু করেছে।

এদিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, এসব বাস উৎপাদনকারীরা বিশ্বজুড়ে তুরস্ক এবং তুর্কি ব্র্যান্ডের সুনাম বৃদ্ধি করবে। গত মাসেই নিজেদের তৈরি ইলেকট্রিক বাসের পরীক্ষা চালায় তুরস্কের আরেক প্রতিষ্ঠান অটোকার।

এর আগে, চালকবিহীন যুদ্ধ হেলিকপ্টার তৈরি করে দেশটি। এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টিটরা টেকনোলজি জানায়, চালকবিহীন যুদ্ধ হেলিকপ্টারটি যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যাপক সময় উড়তে পারবে। ১৬০ কেজি ওজন বহনে সক্ষম হেলিকপ্টারটি ৮৫০ কিলোমিটার দূরত্বে যেতে পারবে।

এ হেলিকপ্টারটি ৪ হাজার ৫৭২ মিটার উচ্চতায় উড়তে সক্ষম। জরুরি ও দুর্যোগকালীন রসদ সরবরাহ এবং যোগাযোগে ব্যবহৃত হওয়া ছাড়াও এটি গোলাবারুদ সরবরাহের মতো কাজও করতে পারবে।