গলা ব্যথা ও টনসিলের সমস্যা দূর করার কার্যকরী উপায় জেনে নিন

অনেকেই ঠাণ্ডা লা’গা কিংবা গলা ব্য’থা স’মস্যায় ভো’গেন। এতে শ’রীরে এক ধ’রনের অস্ব’স্তি তৈরি হয়। তখন খাবার, পানীয় খেতে যেমন কষ্ট হয়, তেমনি ঢোক গিলতেও কষ্ট হয়।

তবে শুধু মৌসুম পরিবর্তন নয়, অনেকসময় দীর্ঘক্ষণ এসি-র মধ্যে থাকলেও ঠাণ্ডা লে’গে গলা ব্য’থা হয়, টনসিলের স’মস্যা বাড়ে।(ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুন)

এ স’মস্যা থেকে মু’ক্তি পেতে ঘন ঘন ওষুধ না খেয়ে ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি অনুসরণ ক’রতে পারেন। চলুন যেনে নেয়া যাক সেই উপায়গুলো- গলা ব্য’থা সারানোর প্রাথমিক চিকিৎ’সা হচ্ছে গরম পানির স’ঙ্গে লবণ মিশিয়ে কুলিকুচি করা। এটি গলা ব্য’থা(ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুন)

থেকে তাৎক্ষণিক মু’ক্তি দিতে সহায়তা করে।

গলা ব্য’থা কমাতে মধু বেশ কা’র্যকরী। এজন্য এক কাপ গরম পানিতে এক থেকে দুই চামচ মধু মিশিয়ে দিনে দুই থেকে তিনবার পান করুন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগেও এক চা চামচ মধু খেতে পারেন।

আদায় থাকা অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরী এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান গলা ব্য’থা কমাতে সহায়তা করে। এর জন্য হাড়িতে গরম পানি নিয়ে তাতে কয়েক টুকরা আদা দিন।

এরপর পানিটা ৫ থেকে ১০ মিনিটের জন্য ফোঁটান। দিনে কমপক্ষে দু’বার এই পানি পান করুন। চাইলে এতে এক চা চামচ মধুও যোগ ক’রতে পারেন। লেবু শ’রীর থেকে টক্সিন দূ’র করার ক্ষেত্রে খুব উপকারী। গলা ব্য’থা দূ’র ক’রতে এক গ্লাস গরম পানিতে লেবুর রস ও এক চা চামচ মধু ভালোভাবে মেশান।

দিনে অ’ন্তত দু’বার এটি পান করুন। এটি গলা ব্য’থা ও টনসিলের স’মস্যা দূ’র ক’রতে সাহায্য করে। রসুনে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক উপাদান গলা ব্য’থা নিরাময়ে সহায়তা করে। এতে থাকা অ্যালিসিন উপাদান গলা ব্য’থাজনিত ব্যাকটেরিয়া ধবংস করে।