ছাত্রকে হোটেলে নিয়ে অ’সামাজিক কাজে লিপ্ত অবস্থায় ধরা খেলেন শিক্ষিকা

১৫ বছর বয়সী এক ছা*ত্রের স*ঙ্গে যৌ*ন স*ম্পর্ক গড়ে তো*লার অভিযোগ উঠেছে এক শি*ক্ষিকার বি*রুদ্ধে। এ কারণে ওই শিক্ষিকাকে কা*রাদণ্ড দিয়েছে ব্রিটে*নের একটি আদালত।

৪৩ বছর বয়সী এবং বিবাহিতা ওই শিক্ষিকা ছাত্র*কে নিয়ে হো*টেলরুমে উঠার পরি*কল্পনা করেন এবং এজন্য বুকিংও দিয়েছিলেন।

এ অভিযোগে তাকে দু’বছরের জেল দিয়েছে লিভারপুল ক্রাউন কোর্ট।লিডিয়া বেটি মিলিগ্যান (৪৩) নামের ওই নারী সহকারী শিক্ষিকা।

তার বিরুদ্ধে আদালতে শুনানিতে বলা হয়েছে, তিনি ১৫ বছর বয়সী ওই ছাত্রে*র স*ঙ্গে সাক্ষা*তের পর তাকে অন্যদের থেকে আলাদা করে ফেলা শুরু করেন।

তারপর তাকে যৌ*নতায় উদ্বুদ্ধ করেন। শেষে হো*টেল বু*কিং দেওয়ার কথা স্বী*কার করেছেন তিনি।তবে আ*দালতে ওই ছাত্রকে বিভিন্ন বিষয়ে সাহায্য করতে চেয়েছিলেন দাবি করে যৌ*নতার অভি*যোগ অস্বী*কার করেছেন মিলিগ্যান। শিশুদের সঙ্গে যৌ*ন সম্প*র্ক গড়ে তোলার কোনোই আগ্রহ তার নেই বলেও দাবি করেছেন।

তবে লিভারপুল ক্রাউন কোর্টের এক জুরি শুনানির এক ঘণ্টার মধ্যে তাকে অভিযুক্ত করেন।দু’সন্তানের মা মিলিগ্যানের বিরুদ্ধে কারাদণ্ডের ঘোষণা দিয়ে বিচারক গ্যারি উডহল বলেন, ওই শিশুর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন তিনি। জুরিদের শুনানিতে ওই বালককে পাঠানো এসএমএস পড়ে শোনানো হয়।

তাতে ওই বালককে তিনি লিখেছেন, সে খুবই বিস্ময়কর।তিনি আরও লিখেছেন, তিনি খেতে পারেননি। ঘুমাতে পারেননি। এছাড়া তিনি এসএমএসে চুম্বনের ইমোজি ব্যবহার করেছেন। আর শেষে ব্যবহার করেছেন ইংরেজি শব্দ ‘বেবিস’।এছাড়া বেটি-মিলিগ্যানের এক বন্ধু তাকে মিসেস রবিনসন হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

ছাত্র-শিক্ষিকার সম্পর্কের এই বিষয়টি প্রথম একজন সহকর্মীর নজরে আসে। এ সময় ১৫ বছর বয়সী ওই বালকের বিষয়ে অতিমাত্রায় মনোযোগ দিচ্ছিলেন শিক্ষি*কা মিলিগ্যান। এ ছাড়া ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠার চেষ্টা করছিলেন। শিক্ষাজীবনে রয়েছে ২৫ বছরের অভিজ্ঞতা।

এক পর্যায়ে ওই বালককে অঙ্কনে তিনি বোনাস নম্বর দেন।পরে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে স্কুল থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় বেটি মিলিগ্যানকে। খবর দেয়া হয় পুলিশে। আদালতের শুনানিতে বলা হয়েছে, বেটি মিলিগ্যানের চরম অনৈতিক আচরণে অন্যরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।