তিন মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর যু’ক্তরাষ্ট্রে সহকারী শিক্ষিকা

তিন মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর আগে যু’ক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন তানিয়া রহমান নামের টাঙ্গাইলের মির্জা’পুর পৌরসভা’র বাওয়ার কুমা’রজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা।

যোগাযোগ করতে না পেরে তার বি’রুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারছে না স্থানীয় শিক্ষা অফিস।

উপজে’লা শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, তানিয়া রহমান ২০১৯ সালের ৩ জুলাই থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত ব্যক্তিগত সমস্যা দেখিয়ে স্কুল থেকে ছুটি নেন। ছুটি নিয়ে ওই বছরের ২ জুলাই সপরিবারে যু’ক্তরাষ্ট্রে চলে যান। এরপর থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই এই শিক্ষিকার।

উপজে’লা শিক্ষা অফিস থেকে একাধিকবার এ ব্যাপারে কৈফিয়ত চেয়ে তার ঠিকানায় পত্র পাঠালেও কেউ তা গ্রহণ করেননি। সর্বশেষ গত বছরের ২৩ জুলাই কৈফিয়ত চেয়ে পত্র পাঠায় উপজে’লা শিক্ষা অফিস। ওই পত্রটিও কেউ গ্রহণ করেননি।

এ ব্যাপারে জানতে বাওয়ার কুমা’রজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেলুয়ারা বেগমের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মির্জা’পুর উপজে’লা শিক্ষা অফিসার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, সহকারী শিক্ষিকা তানিয়া রহমান তিন মাসের ছুটি নেন। এরপর দীর্ঘদিন তানিয়া রহমান বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকার বিষয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি তিনি যু’ক্তরাষ্ট্রে চলে গেছেন। একাধিকবার পত্র দিয়েও তার কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি। তার বর্তমান অবস্থান স’ম্পর্কে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।