সুয়ারেজকে ছাড়িয়ে রোনালদোর পাশে মেসি

লা লিগার শীর্ষ গোলদাতার তালিকার চূড়ায় উঠলেন লিওনেল মেসি। এলচের বিপক্ষে বার্সেলোনার ৩-০ গোলের জয়ের রাতে করেছেন জোড়া গোল, গড়ে দিয়েছেন একটি।

গোলদুটো করে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে পাড়ি জমানো বন্ধু লুই সুয়ারেজকে সরিয়ে বনে গেছেন লা লিগার শীর্ষ গোলদাতা। প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গেও ফিরিয়েছেন সমতা, তার গোলও এখন ১৮টি।

দুই অর্ধে দুই রূপ। শেষ কিছুদিনে নিয়মিত বার্সেলোনাকে খেলতে দেখে থাকলে এমন দৃশ্য আপনার কাছে অপরিচিত ঠেকার কথা নয়। বৃহস্পতিবার রাতেও তেমনই আরেকটা উদাহরণ দেখেছে ক্যাম্প ন্যু। অবনমন অঞ্চলের এলচের বিপক্ষে গোলের সুযোগ সৃষ্টি করতেই গলদঘর্ম হয়েছে কোচ রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা।

প্রথমার্ধে অবশ্য এরপরও দারুণ দুটো সুযোগ পেয়েছে স্বাগতিকরা। ফ্রান্সেসকো ত্রিঙ্কাওয়ের দুটো শটই দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়েছেন এলচে গোলরক্ষক। তবে দলটির অপেক্ষা শেষ হয় দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই। ৪৮ মিনিটে ‘পুরনো মেসি’ ঝলকে নজরকাড়া ড্রিবল দিয়ে রক্ষণদেয়াল ভেঙে প্রতিপক্ষ বিপদসীমায় আসেন আর্জেন্টাইন তারকা। সতীর্থ মার্টিন ব্র্যাথওয়েটকে ছাড়া বলটা ফেরৎ পেয়েই গোলটি করেন মেসি। তাতেই বন্ধু সুয়ারেজকে ছাড়িয়ে পিচিচির দৌড়ে শীর্ষে উঠে আসেন তিনি।

এক গোলের অগ্রগামিতা হারানো সম্ভব যে কোনো সময়। তাই দ্বিতীয় গোলের আগে স্বস্তি ছিল না বার্সার। সেই স্বস্তির দ্বিতীয় গোলটিও করেন মেসি। মিডফিল্ডার ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং একক নৈপুণ্যে এলচে রক্ষণ ভেঙে ঢোকেন প্রতিপক্ষ রক্ষণে। পাস বাড়ান মেসিকে। ব্যবধান বাড়ান বার্সা অধিনায়ক।

কাতালানদের শেষ গোলেও ছিল মেসির ছোঁয়া। তার লবে মাথা ছুঁইয়েই বলটা ছয় গজের বক্সে বাড়ান ব্র্যাথওয়েট, প্রথম ছোঁয়াতে গোল করতে ভুল করেননি জর্দি আলবা। তাতেই জয়টা নিশ্চিত হয়ে যায় বার্সেলোনার। অ্যান্টোয়ান গ্রিজমান দুটো সুযোগ নষ্ট না করলে হয়তো ব্যবধানটা আরও বাড়তেও পারতো, তবে ৩-০ গোলের ব্যবধানটাও নেহায়েত মন্দ নয়।

এ ম্যাচের জোড়া গোলের পর ১৮ গোল নিয়ে লা লিগার শীর্ষ গোলদাতার পুরষ্কার পিচিচির দৌড়ে সবার আগে চলে এসেছেন মেসি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সুয়ারেজের গোলসংখ্যা এখন ১৬টি। এর ফলে ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটের দৌড়েও অনেকটা এগোলেন ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। ১৮ গোল নিয়ে সমতায় এসেছেন সিরি’আর সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদোর। তবে এ দৌড়ে রবার্ট লেভান্ডভস্কির সঙ্গে পেরে ওঠাটা কঠিনই মনে হচ্ছে মেসির জন্য। বুন্ডেসলিগায় ২৬ গোল নিয়ে যে এ তালিকার শীর্ষে আছেন পোলিশ স্ট্রাইকার।

তবে সেসব ছাপিয়ে হয়তো মেসির ভাবনায় এখন দলের ভাবনাই বেশি। আগামী রবিবারই যে পয়েন্ট তালিকার চারে থাকা সেভিয়ার বিপক্ষে খেলবেন মেসিরা। এর চারদিন পর আবারও প্রতিপক্ষ হবে সেভিয়া; ম্যাচটা কোপা দেল রেতে, যেখানে প্রথম লেগে ২-০ গোলে হেরে বসেছিল কোম্যানের শিষ্যরা।

তার ঠিক আগে জয়ের ফলে লা লিগার শীর্ষে থাকা অ্যাটলেটিকোর সঙ্গে ব্যবধান কমিয়েছে কোম্যানের শিষ্যরা। ২৪ ম্যাচে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে কোচ সিমিওনের অ্যাটলেটিকো থেকে ৫ পয়েন্টে পিছিয়ে এখন দলটি। সমান ম্যাচ থেকে রিয়াল মাদ্রিদের সংগ্রহ ৫২ পয়েন্ট।