পিলখানা ট্র্যাজেডির এক যুগ আজ

পিলখানা ট্র্যাজেডির ১২ বছর পূর্তি আজ। ২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি বিদ্রোহের নামে পিলখানায় ঘটে এক নারকীয় হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনায় প্রাণ হারান ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জন।

টানা একদিন এক রাত শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি মোকাবিলার পর ২৬ ফেব্রুয়ারি বিদ্রোহ নিয়ন্ত্রণে আসে। আলামত মুছে ফেলতে বিদ্রোহীরা লাশ পুড়িয়ে ফেলে, দেয়া হয় গণকবর। এ ঘটনায় তিনটি মামলা হয়। হাইকোর্টের বিশেষ বেঞ্চের বিচারপতিরা পিলখানা হত্যা মামলায় ১৩৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড, ১৮৫ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও অন্যদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেন।

ওই ঘটনার পর সীমান্তরক্ষী বাহিনীটিকে পুনর্গঠন করা হয়। বাহিনীর নাম, পোশাক, পতাকা, মনোগ্রামসহ বেশ কিছু বিষয়ে পরিবর্তন আসে।

এদিকে, ঘটনার এতো বছর পরও সেই দুঃসহ স্মৃতি ভুলতে পারেননি নিহতদের স্বজনরা। ভবিষ্যতে সরকারি কোনো বাহিনীতে এ ধরনের নারকীয় ঘটনার পুনরাবৃত্তি চান না তারা।