পুলিশ করলো জরিমানা, নারী দিল চুমু

কথায় বলে নিয়ম তৈরিই হয় ভাঙার জন্য। নিয়ম কিংবা আইন যেটাই বলেন তা অমান্য করার মানুষের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। আর এই নিয়ম অমান্যকারীদের শাস্তি কিংবা জরিমানা দেয় আইন শৃঙ্খলাবাহিনী।

কিন্তু সম্প্রতি করোনা মহামারির আইন অমান্য করায় এক নারীর কাছে জরিমানার পরিবর্তে চুমু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন পেরুর এক পুলিশ। শাস্তিস্বরূপ তাকে সাময়িক বরখাস্তও করা হয়েছে।

পেরুর রাজধানী লিমাতে এক নারী করোনায় আরোপিত বিধি নিষেধ অমান্য করেন। তা দেখে এক পুলিশ যেয়ে ধরেন তাকে। করেন জরিমানাও।

কিন্তু চতুর সেই নারী জরিমানার পরিবর্তে পুলিশকে চুমু দেওয়ার প্রস্তাব দেয়। সেই পুলিশও এতে রাজি হয়ে যান।

তবে শেষ রক্ষা হয়নি। সিসিটিভ ক্যামরায় ধরা পড়ে যায় তাদের সেই কীর্তি। সেই ফুটেজ আবার পৌঁছে যায় স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের হাতে। শুরু হয় হইচই। এরপর সেই পুলিশকে বরখাস্ত করা হয়। এ নিয়ে তদন্তও চলছে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা ইবিরো রদ্রিগেজ বলেন, আমাদের মেয়র লুইস মোলিনা ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

কিছু আইন অমান্য হয়েছে। ওই যুবতী সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি আইন অমান্য করেছেন। এরপর এই পুলিশ মাস্ক খুলে নারীটিকে চুমু খেয়েছে। এই ধরনের কাজ গুরুতর অপরাধ। এজন্য ওই পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সূত্র: ডেইলি মেইল