বিয়ে করে নিখোঁজ চিত্রনায়িকা পপি!

প্রায় এক বছর আগে ষাটোর্ধ্ব ও বিবাহিত এক প্রকৌশলীকে গোপনে বিয়ে করেন পপি! মাস খানেক আগে এমন খবর দেশের বেশ কিছু গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

সে খবরে বলা হয়, বিয়ের পর রাজধানীর ইস্কাটেনের বাসা থেকে বারিধারায় নতুন আলিশান ফ্ল্যাটে উঠেছেন পপি।

এমন খবর প্রকাশের পর থেকে পপির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলে। কিন্তু মোবাইলে ফোনেও পাওয়া যায়নি তাকে। প্রায় পাঁচ বছর ধরে যে নাম্বারটি তিনি ব্যবহার করেন, সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

চিত্রজগতের যাদের সঙ্গে পপির উঠাবসা, খাতির- তারাও পপির কোনো খোঁজ দিতে পারছেন না! তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পরিচালক জানান, পপি বিয়ে করে সংসারি হয়েছেন। স্বামীর দেওয়া ফ্ল্যাটেই রয়েছেন। হয়তো পপিকে আর সিনেমায় দেখা যাবে না বলে মন্তব্য করেন ওই পরিচালক!

তবে মাস খানেক আগে পপির বোন ফারজানাকে পাওয়া যায় ফোনে। তখন পপির বিয়ে সম্পর্কে জানতে চাইলে ফারজানা বলেন, ‘আমার বোনের বিয়ের খবর আমি জানি না। আমার বোন কোনো বিয়ে করেনি, সব মিথ্যা আর বানোয়াট খবর।’ এরপর আবার কল করা হলে ফারজানা আর ফোন ধরেননি।

এদিকে পপি দীর্ঘদিন তার মোবাইল ফোন বন্ধ রাখার ফলে বিয়ের খবরটি জোরালভাবেই ছড়াতে থাকে।

গত বছর আগস্টে এক সাক্ষাৎকারে গোপন বিয়ে নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েন পপি। জবাবে বলেছিলেন, ‘বিয়ে করা কোনো অপরাধ নয়, বিয়ে করা কোনো পাপ নয়। নতুন একটা জীবন শুরু করা। অনেককেই দেখেছি, এই শুভ কাজ গোপনে করছেন, মনে হয় তারা যেন পাপ করছেন। এই শুরুটা গোপনে বা লুকিয়ে করার কোনো মানে হয় না। আমি বিয়ে করলে ঢাকঢোল পিটিয়েই করব।’

এদিকে পপি অভিনীত ‘ডাইরেক্ট অ্যাটাক’ ছবি আসন্ন ঈদে মুক্তির ঘোষণা দিযেছেন এর পরিচালক সাদেক সিদ্দিকী। ছবিটিতে পপির নায়ক হিসেবে আছেন আমিন খান।

লকডাউনের সময় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন পপি। সময়টা গ্রামের বাড়িতে ছিলেন তিনি। সুস্থ হয়ে ঢাকায় ফেরেন। এখন আছেন একেবারে আড়ালে। আগে সিনেমায় দেখা না গেলেও পপিকে প্রতিমাসে কোনো না কোনো স্টেজ শো’তে পারফর্ম করতে দেখা যেতো। এখন তাও যাচ্ছে না।