আনারসের খোসাতেই মিলবে পাঁচ জটিল রোগ মুক্তি

আনারসের খোসা আমাদের অনেক জটিল রোগ থেকে মুক্তি দিতে সক্ষম। এর খোসায় রয়েছে বহু গুণাগুণ, যা আমাদের শরীরের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

বর্তমান সময়ে বাজারে সহজলভ্য একটি ফল হচ্ছে আনারস। এই গরমে প্রশান্তি পেতে আমারা কমবেশি সবাই এই সুস্বাদু ও রসালো ফলটি খেয়ে থাকি। যা স্বাস্থ্যের জন্যও খুব উপকারী।

জানেন কি, এমন কিছু ফল রয়েছে যার বীজ ও খোসা ফলের মতোই সমান পুষ্টিকর। এরকম ফলের মধ্যে অন্যতম হলো আনারস। কি অবাক হচ্ছেন? অবাক হলেও সত্যি, আনারসের খোসা আমাদের অনেক জটিল রোগ থেকে মুক্তি দিতে সক্ষম। এর খোসায় রয়েছে বহু গুণাগুণ, যা আমাদের শরীরের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। যদিও আমরা না জেনেই এর খোসাগুলো অকেজো মনে করে ফেলে দেই।

চলুন এবার জেনে নেয়া যাক আনারসের খোসার স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে-

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি : আনারস এবং তার খোসায় উচ্চমাত্রায় ভিটামিন সি থাকে, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

হজম ক্ষমতা উন্নত করে : আনারসের রসালো অংশের চেয়ে খোসাটি অনেকটা শক্ত এবং স্বাদেও কিছুটা তেতো। তবে এই খোসা ফাইবারের অন্যতম উৎস, যা হজম ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

ঠাণ্ডা থেকে উপশম : আনারসের খোসাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল থাকে। তাই ঠাণ্ডা লাগলে তা থেকে বাঁচতে গ্রহণ করতে পারেন আনারস্বের খোসা।

চোখ ভালো রাখে : আনারসের খোসায় থাকে বিটা ক্যারোটিন, যা চোখের রেটিনাকে ঠিক রাখতে সাহায্য করে। চোখের ম্যাকুলার ডিজেনারেশন রোগ হওয়া থেকে রক্ষা করে। এই সমান কার্যকরী গুণ আনারসের সুস্বাদু অংশেও থাকে।

হার্টের সমস্যা দূর করে : আনারসের খোসায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে, যা হৃদরোগ প্রতিরোধের জন্য দুর্দান্ত। আপনার যদি হার্ট এর সমস্যা থেকে থাকে তবে আপনি এটি খেতে পারেন।

কীভাবে খাবেন? খোসা থেকে কাঁটাগুলোকে ভালোভাবে বার করে ফলের সঙ্গেই খোসা খেতে পারেন। অথবা কাঁটা অংশ বাদ দিয়ে গ্রাইন্ডারের মাধ্যমে রস বের করে খেতে পারেন। আবার আনারস খোসার চা তৈরি করেও খেতে পারেন। সূত্র: বোল্ডস্কাই