নিজের প্রকৃত বয়স জানালেন সেই ‘শিশুবক্তা’

দেশজুড়ে ওয়াজ মাহফিল করে আলোচনা-সমালোচনার তুঙ্গে শিশুবক্তা হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলাম।

শারীরিক গঠন ও শিশু সুলভ কন্ঠের কারণেই শিশুবক্তা হিসেবে পরিচিতি পায় রফিকুল। তবে এবার তার বয়সের গোমর খুললেন তিনি নিজেই।

রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বর এলাকায় গতকাল বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে যুব অধিকার পরিষদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া চলছে।

এসময় পুলিশ বিক্ষোভে অংশ নেওয়া রফিকুল ইসলাম ওরফে শিশুবক্তাকে আটক করে। পরে অবশ্য রাতেই রফিকুল ইসলামকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এরপর দিনভর তাকে নিয়ে দেশের গণমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় চলে নানা আলোচনা।

রফিকুল ইসলাম রাজধানীর বারিধারায় মাদানী এভিনিউয়ের পাশে অবস্থিত জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা মাদরাসায় দাওয়ায়ে হাদিস পড়েছেন।

এছাড়া তিনি বিএনপি-জামায়াত জোটের শরিকদল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের অঙ্গসংগঠন যুব জমিয়তের নেত্রকোনা জেলার সহ-সভাপতি।

এক ওয়াজ মাহফিলে রফিকুল ইসলাম বলেছিলেন, আমাকে শিশুবক্তা বানিয়ে রাখা হয়েছে। আমি ১৯৯৫ সালে জন্মগ্রহণ করেছি।

আর আজহারি সাহেব ১৯৯২ সালে জন্মগ্রহণ করেছেন। তাহলে আমি কীভাবে শিশুবক্তা হলাম। তবে আজহারি সাহেবের দ্বারা যদি ইসলামের খেদমত হয়, তাহলে আমার কোনো আপত্তি নেই।