২ সপ্তাহের কড়া ল’ক’ডা’উ’ন চান ডাক্তাররা

ক’রো’ভা’ই’রা’স ঠেকাতে দুই সপ্তাহের জন্য দেশজুড়ে কঠোর ল’ক’ডা’উ’ন আ’রো’পে’র পরামর্শ দিয়েছেন জার্মানির ডাক্তাররা৷ খবর ডয়চে ভেলে’র।

দেশটির ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটের ডাক্তাররা বলছেন বর্তমান পরিস্থিতি ঠেকাতে এবং হাসপাতালে রো’গী’র চাপ ক’মা’তে দুই সপ্তাহের জন্য কড়া ল’ক’ডা’উ’ন আরোপ করা প্রয়োজন৷

ক’রো’না ভা’ই’রা’সে’র দ্বিতীয় ঢেউ শেষ হয়ে দেশটি তৃতীয় ঢে’উ’য়ে’র মুখে পড়েছে৷ গত সপ্তাহে দেশটিতে ক’রো’না আ’ক্রা’ন্তে’র মোট সংখ্যা ছিল এক লাখ৷ আ’ক্রা’ন্তে’র এ সংখ্যা চলতি বছরের মধ্য জানুয়ারির পর থেকে সর্বোচ্চ বলে জানিয়েছে জার্মানির রবার্ট কখ ইনস্টিটিউট৷ এমন পরিস্থিতিতে ডাক্তাররা হাসপাতালে ক’রো’না’য় আ’ক্রা’ন্ত রো’গী’রা চা’প সা’ম’লা’তে হি’ম’শি’ম খাচ্ছেন৷

এই মুহূর্তে ক’ঠো’র ল’ক’ডা’উ’ন, টি’কা’প্রদান এবং করোনা টে’স্ট’সহ একটি স’ম’ন্বি’ত চে’ষ্টা প্রয়োজন৷

তা না হলে হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটগুলো চাপ সামলাতে পারবে না বলে মনে করেন জার্মান ইন্টারডিসিপ্লিনারি এসোসিয়েশন ফর ইনটেনসিভ কেয়ার আ্যান্ড ইমার্জেন্সি মেডিসেনের প্রধান ক্রিশ্চিয়ান কারাইয়ানিভিস৷ ডাক্তারদের আ’শ’ঙ্কা ক’রো’না’র তৃতীয় ঢেউ আরো ভ’য়া’ব’হ হতে পারে৷

পরিস্থিতি মোকাবেলায় কঠোর ল’ক’ডা’উ’নে’র ঘোষণা দিয়েছিল আঙ্গেলা ম্যার্কেল সরকার৷ ইস্টারের ছুটির সময়ে অর্থাৎ ১ এপ্রিল থেকে ৫ এপ্রিল পর্যন্ত ক’ঠো’র ল’ক’ডা’উ’নে’র পরিকল্পনা করা হয়েছিল৷ কিন্তু জনগণের চাপের মুখে এমন সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে সরকার৷

এদিকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিলে পরিস্থিতি আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আরো ভ’য়া’ব’হ হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন চ্যান্সেলর ম্যার্কেলের চিফ অব স্টাফ হেলগে ব্রাউন৷

তিনি বলেন, এ মুহূর্তে যদি সং’ক্র’ম’ণ কমিয়ে আনা না যায় তাহলে ভা’ই’রা’স’টি’র নতুন মিউটেশন হবে যা ভ্যাকসিনেও কার্যকর হবে না৷