আটকে গেলেন দীঘি

ভারতের প্রখ্যাত নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বায়োপিক নির্মাণ করছেন।

এই বায়োপিকে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের চরিত্রের অভিনয় করছেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। ‘বঙ্গবন্ধু’ নামে সিনেমাটির দ্বিতীয় লটের শুটিংয়ে অংশ নিতে গত ২৫ মার্চ মুম্বাই গেছেন এই অভিনেত্রী।

সেখানে দাদাসাহেব ফালকে ফিল্ম সিটিতে থেকে টানা কয়েকদিন শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন দীঘি। কিন্তু করোনার কারণে টিকিট না পাওয়ায় দেশে ফিরতে পারছেন না তিনি।

বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব চরিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে দীঘি বলেন, ‘আমার এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না যে আমার মতো এতো ছোট্ট একজন মানুষ বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করছি।

শ্যাম বেনেগাল স্যার প্রত্যেকটি দৃশ্যে অভিনয়ের পূর্বে আমাকে যেভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন সেভাবেই কাজ করার চেষ্টা করছি। অভিনয়ের পর তিনি আমার প্রশংসাও করেছেন।’

এই বায়োপিকে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক আরিফিন শুভ। তাকেও ধন্যবাদ দিলেন দীঘি, ‘অনেক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা আরিফিন শুভ ভাইয়ার প্রতি।

কারণ তিনিই মূলত আমার প্রধান সহশিল্পী। যেহেতু তিনিই বঙ্গবন্ধুর চরিত্রটি করছেন, প্রত্যেকটি দৃশ্যে তিনি আমাকে ভীষণ সহযোগিতা করছেন।’

২ এপ্রিল (শুক্রবার) মুক্তি পেয়েছ দীঘি অভিনীত ‘টুঙ্গি পাড়ার মিয়া ভাই’ চলচ্চিত্র। এখানেও ফজিলাতুন্নেসা মুজিব চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীঘি। এর আগে গতমাসে মুক্তি পায় দীঘি অভিনীত প্রথম সিনেমা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত ‘তুমি আছো তুমি নেই’।

দীঘি সম্প্রতি শেষ করেছেন সুমন ধরের ‘চিঠি’র কাজ। এতে তার বিপরীতে আছেন ইয়াশ রোহান।

সোনালীনিউজ