এক বছর পর মাহফিলের মাধ্যমে জনসম্মুখে মিজানুর রহমান আজহারী!

অবশেষে দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময়ের পর জনসম্মুখে আসলেন জনপ্রিয় ইসলামিক বক্তা মিজানুর রহমান আজহারি।

মালয়েশিয়া সরকারের এসওপি মেনে গত রবিবার এনটিভি মালয়েশিয়া কর্তৃক আয়োজিত এক ইফতার মাহফিলে তিনি বয়ান করেন।

রাজধানী কুয়ালালামপুরের পাঁচ তারকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এই মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এনটিভি দর্শক ফোরাম মালয়েশিয়ার এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কমিউনিটির বিভিন্ন শ্রণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় তিনি রমজানে করণীয়-বর্জনীয় ও ইসলামে দান-ছদকা’র গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করেন। আজহারি বলেন, রহমত, মাগফিরাত, নাজাত ও বরকতপূর্ণ এই মাসে মহান আল্লাহ রহমতের দরজাগুলো তার নেক বান্দাদের জন্য খুলে দেন। মাহে রমজানে কোনো বান্দা যদি ওমরাহ পালন করে, তবে সে হজ্জ্বে’র সমান সওয়াব পাবে।

রোজার সার্বিক গুরুত্ব অপরিসীম এর মাধ্যমে মানুষের মধ্যে আল্লাহভীতি সৃষ্টি হয়। ফলে মানুষ বিভিন্ন পাপাচার থেকে দূরে থেকে সৎ কাজের প্রতি ধাবিত হয়।

সুতরাং আমাদের প্রত্যেকের উচিত, রোজার এ মহান শিক্ষাকে উপলব্ধি করা। এ মাসে যে ব্যক্তি কোনো রোজাদারকে ইফতার করালে তা তার জন্য গুনাহ মাফের এবং দোযখের আগুন থেকে মুক্তির কারণ হবে।

এছাড়া ছদকা বা দান সম্পর্কে তিনি বলেন, এ মাসে বান্দা যত আমল করবে তার পরকালীন ভাণ্ডার ততই সমৃদ্ধ হবে। রমজানের অন্যতম আমল দান-সদকা।

গরিব-দুঃখী মানুষের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া। কারণ রোজা ফরজ করা হয়েছে মানুষের কল্যাণের জন্য। আর এ কল্যাণ তখনই অর্জিত হবে যখন রোজাদার দানের হাত প্রসারিত করবে।

উল্লেখ্য বিশ্বজুড়ে করোনা প্রাদুর্ভাবের পর এটিই ছিলো মিজানুর রহমান আজহারির প্রথম মাহফিল।