স্বামীকে বাঁচাতে মুখে ফুঁ দিয়ে শ্বাসপ্রক্রিয়া চালানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ স্ত্রী

সব হাসপাতালে শয্যা সংকট, অক্সিজেনের অভাব তীব্র। এদিকে করোনার বাড়বাড়ন্তে শয়ে শয়ে মরছে মানুষ। এমনই ঘটছে প্রতিবেশি ভারতে।

ভারতের সেই করুণ অবস্থা আরও ফুঁটিয়ে তুলছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ছবি। সেরকমই দুটি ছবি আলোড়ন সৃষ্টি করেছে দেশটির রাজ্য উত্তরপ্রদেশে।

একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, গাড়ির ছাদে বাবার দেহ শেষকৃত্যের জন্য নিয়ে যাচ্ছেন এক ব্যক্তি। অন্য একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, স্বামীর মুখে নিজের মুখ দিয়ে অক্সিজেন দেওয়ার চেষ্টা করছেন এক নারী।

প্রথম ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি লাল সেডানের ছাদে সাদা চাদরে মোড়া একটি দেহ। এটি আগ্রার মোহিত নামের এক ব্যক্তির বাবার দেহ বলে জানা গিয়েছে।

যিনি সম্প্রতি করোনায় মারা যান। কিন্তু শেষকৃত্যের জন্য শব নিয়ে যাওয়ার কোনো গাড়ি পাননি। অবশেষে নিজেদের গাড়ির ছাদে বাবার দেহ বেঁধে আগ্রার মোক্ষধামে নিয়ে যান শেষকৃত্যের জন্য।

তবে এটি কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। উত্তরপ্রদেশে শেষকৃত্যের জন্য শ্মশানের বাইরে রীতিমতো টিকিট কেটে দীর্ঘ অপেক্ষা করতে হচ্ছে মানুষকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া অন্য ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, অটোর মধ্যে কোনোরকমে শুয়ে রয়েছেন এক ব্যক্তি। আর তার মুখে মুখ দিয়ে এক নারী অক্সিজেন দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটি প্রকাশ করে দাবি করা হয়েছে, ওই ব্যক্তির শ্বাসকষ্ট শুরু হয়েছিল। কিন্তু কোথাও অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছিল না।

তাই স্বামীকে বাঁচাতে নিজের মুখ দিয়েই কৃত্রিমভাবে শ্বাসপ্রক্রিয়া চালানোর চেষ্টা করছিলেন ওই নারী। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নাকি তাকে বাঁচানো যায়নি। এটিও উত্তরপ্রদেশের আগ্রার ঘটনা বলে দাবি করা হয়েছে টুইটে।