আর হবে না ভারতে আইপিএল, জানালেন সৌরভ; কী হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের?

করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৪তম আসরের বাকি অংশ ভারতে হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এমনটি আগেই জানিয়েছেন, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের শীর্ষস্থানীয় এক কর্মকর্তা।

আর এবার সেই একই কথা বললেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। তিনি জানান, এবছর আর দেশের মাটিতে সম্ভব নয় আইপিএল।

তবে কি বিদেশে? এ ব্যাপারে বোর্ড প্রেসিডেন্টের বক্তব্য, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও ইংল্যান্ড সিরিজের মাঝে ইংল্যান্ডেও আইপিএলের আয়োজন সম্ভব নয়।

আইপিএলের বাকি খেলাগুলি শেষ করার জন্য স্লট খুঁজে পাওয়া মুশকিল হয়ে দাঁড়িয়েছে বিসিসিআই’র এর পক্ষে। কোয়ারেন্টাইন পর্ব মিটিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের পর ও ভারত-ইংল্যান্ড টেস্ট শুরুর আগের মধ্যবর্তী সময়েও আইপিএল করা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন সৌরভ।

তাহলে পাঁচ মাসের মাথায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কী হবে?

সৌরভ বলেন, গেল বছর দুবাইয়ে আইপিএল-এর আয়োজন করা কঠিন কাজ ছিল। ঘরোয়া ক্রিকেট আয়োজনেও প্রচুর সমস্যা পোহাতে হয়েছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসার আগে সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল।

আশা করি সবাই বুঝতে পারছেন ক্রিকেট আয়োজন করা কতটা কঠিন কাজ। পাঁচ মাস পর বিশ্বকাপ রয়েছে। কিন্তু এই অতিমারি থাকলে যে কোনও ধরনের ক্রিকেট আয়োজন করাই কঠিন হবে।

দেশজুড়ে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভে অক্সিজেন সঙ্কট, বেডের হাহাকারের মাঝেই আইপিএল খেলা চালিয়ে যাওয়া নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে বিসিসিআই তথা বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলিকে।

তবে সেসবে পাত্তা না দিয়ে তিনি সাফ জানিয়েছেন, খেলোয়াড় কেউ যদি আক্রান্ত না হতেন তাহলে এটা নিশ্চিত ছিল যে খেলা চালিয়ে যেতাম।

ক্রিকেটাররা বায়ো বাবলে ছিল আর স্টেডিয়াম দর্শকশূন্য ছিল। কেউ আক্রান্ত হননি। কিন্তু দিল্লি এবং আহমেদাবাদের খেলা হওয়ার পরেই এই ঘটনা ঘটেছে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দিকে দেখুন। ওদেরও অনেকে আক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু ওরা ম্যাচ পিছিয়ে পরে আয়োজন করেছে। আইপিএল-এ সেটা সম্ভব নয়।