আমাকে মুটকি বলবেন না, আমি আপনার খেয়ে মোটা হয়নি, লাইভে এসে চরম রেগে গেলেন শুভশ্রী, ভাইরাল ভিডিও

শুভশ্রী টলিউডের একটি অতি পরিচিত মুখ। প্রথম থেকেই তিনি অত্যন্ত চর্চিত। তার অভিনয় ক্ষমতার জোরে তিনি খুব কম সময়ে টলিউডে একটি বিশেষ জায়গা অধিকার করে নিয়েছিলেন।

এখনো পর্যন্ত শুভশ্রী রয়েছেন খ্যাতির শীর্ষে। টলিউডে থাকাকালীন তার জীবনে পড়েছে অনেক প্রভাব। অতীত জীবনে তিনি অভিনেতা দেবের সঙ্গে একটি বিশেষ সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন।

কিন্তু পরবর্তীকালে কোন অজ্ঞাত কারনে সে বিশেষ সম্পর্ক ভেঙে যায়। সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় তিনি খুবই ভেঙে পড়েছিলেন, অনেকবার সংবাদমাধ্যমকেও পরোক্ষভাবে তিনি তার কষ্টের কথা জানাতে চেয়েছেন।

কিন্তু 2016 সালের “অভিমান” সিনেমা তার জীবনটা বদলে দেয়। এই সেটেই তার পরিচয় হয় পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে।

এর আগে রাজ চক্রবর্তীও ছিলেন অভিনেত্রী মিমি সঙ্গে একটি বিশেষ সম্পর্কে, কিন্তু পরে কোন কারণে সেটি ভেঙে যায়।

দুইজন ভগ্ন হৃদয়ের মানুষ প্রথম আলাপেই দুজনকে ভালোবেসে ফেলেন। পরবর্তীকালে 2018 সালে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এর পরেই তাদের সংসারে আসে ছোট্ট ইউভান।

বর্তমানে টলিউডের রাজ করছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ও অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীর একমাত্র পুত্র ইউভান।

বলিউডে যদি তৈমুর থাকে তাহলে টলিউডের সম্রাট হচ্ছে ইউভান। ২০২০ সালের ১২ই সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করে রাজপুত্র।

কিন্তু তার আগের যাত্রাটা মোটেই সহজ ছিল না। ইউভানের এর জন্মের আগে রাজের পরিবারকে এক কঠিন বিপর্যয়ের মধ্য দিয়ে পড়তে হয়েছিল।

করণা পরিবেশে কোভিড হয়ে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট মারা যান রাজের বাবা। এই সময় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন রাজের পরিবারের সবাই।

শুভশ্রীর গর্ভকালীন অবস্থায় তাকে ছেড়ে রাজের পরিবারকে থাকতে হয়েছিল কোয়ারেন্টাইনে বহুদিন। এর পরেই ঘটে ইউভানের আগমন।

তার আগমনে সমস্ত কষ্ট ভুলে আবার নতুন করে ঘুরে দাঁড়ানোর শক্তি পেয়েছে তাদের পরিবার। ইউভানের ছোট্ট হাসিমুখ সকলের মন কেড়ে নিয়েছে বারবার।

ইউয়ান তার ঠাকুরমাকে নতুন ভাবে বাঁচার আশা জাগিয়েছে। এমনকি নাতিকে পেয়ে ছেলে বৌমা কেও ভুলে গেছেন এমনটাই দাবি করছেন রাজ।

এমনকি মজা করে এই নিয়ে তিনি দুঃখ প্রকাশও করেছেন। এমনকি মায়ের সঙ্গে একটি ছবি দিয়ে তিনি বলেন, তার ভাগ পুরোটাই ইউভান নিয়েছে।

এখন শুভশ্রী আর রাজের দিন কাটে তাদের ছোট্ট পুত্রকে নিয়ে। ইউভানের জন্মের আগে শুভশ্রীর “পরিণীতা” দর্শকের মন ছুয়ে গেছিল।

অভিনেতা হৃতিক ও তার কেমিস্ট্রি জমে গিয়েছিল পর্দা, অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়েছিলেন আমাদের প্রিয় বাবাইদা আর ছোট্ট মেয়ের প্রেম।

প্রসঙ্গত মাতৃত্বের পরে শুভশ্রী যেন আরও রূপবতী হয়ে উঠেছেন। সম্প্রতি তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থেকে শেয়ার করা ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিল,

তিনি “উমরাওজান” গানে মুখের এক্সপ্রেশন করে দেখিয়েছেন। তার এক্সপ্রেশন দেখে দর্শক মুগ্ধ। বিশেষত মাতৃত্বকালীন সৌন্দর্য তাকে আরও করে তুলেছে অনন্যা।

কিন্তু সম্প্রতি মাতৃত্বকালীন সময়ে পরে তার অতিরিক্ত জমে যাওয়া চর্বি অতিরিক্ত পরিমাণে তার ওজন বাড়িয়ে দিয়েছিল এবং সেই নিয়ে তাকে বারবার ট্রোলড হতে হয়েছিল।

এবার একটি লাইভ ভিডিওতে তিনি তার যোগ্য জবাব দিলেন। তিনি বলেন, প্রত্যেক বাবা-মার কাছে তাদের সন্তান ভগবানের মতো।

মাতৃত্বকালীন সৌন্দর্য ঈশ্বরের দান। মা হওয়ার পৃথিবীর সব থেকে শ্রেষ্ঠ অনুভূতি। তাই তিনি এসব কথার কোন পরোয়া করেন না।

তিনি এও বলেছেন, অতিরিক্ত ওজন অবশ্যই ঠিক নয় তিনি চেষ্টা করছেন ওজন কমানোর এবং তিনি সফল হচ্ছেন। তিনি তার মাতৃত্ব কালীন সৌন্দর্য্যকে ঈশ্বরের আশীর্বাদ বলেই মনে করেন।

প্রসঙ্গত তিনি আরো বলেছেন ইউভানের কথা। তিনি বলেছেন , ইউভান যত বড় হচ্ছে তার ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা ততোই বাড়ছে তাই তিনি তাকে নিয়ে খুব ব্যস্ত।

প্রসঙ্গত তিনি তার আগামী দুটি ছবি “হাবজি গাবজি” এবং “ধর্মযুদ্ধে”র কথা উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেছেন ছবি দুটি জুন মাসে এবং আগস্ট এর শেষে রিলিজ হবে।

ছোট্ট রাজপুত্র কে নিয়ে স্বপ্নের মত কেটে যাচ্ছে শুভশ্রী এবং রাজের জীবন। তাদের জীবনকে আলোকিত করে দিয়েছে ছোট্ট ইউভান। তারা যেন সব সময় এই ভাবেই সুখে থাকেন এই আশাই করি আমরা।