একেবারে খালি হাতে বিশাল আকৃতির জেসিবি মেশিন উল্টে ফেললেন যুবক, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে নানা রকম ভিডিও ভাইরাল হয় প্রতিদিন। সেখানে নাচ-গান প্রভৃতি অ্যাক্টিভিটির সাথে মা’র্শাল আর্ট এছাড়াও নানা রকম অদ্ভুত ঘটনার ভিডিও ভাইরাল ’হতে দেখি আমর’া।

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বহু মানুষ তাদের প্রতিভাকে বিশ্বের সামনে প্রদর্শন করতে পারছেন। দেশের কোনায় কোনায় এমন অনেক মানুষ রয়েছেন, যাদের প্রতিভা থাকলেও নেই সুযোগ।

তবে সোশ্যাল মিডিয়া এবং বিভিন্ন অ্যাপসের মাধ্যমে তারা নানারকমভাবে বিশ্বের সামনে নিজেদের প্রতিভা প্রদর্শন করতে পারছেন। প্রতিভা প্রদর্শনের দৌড়ে কিশোর-কিশোরী যুবক-যুবতীদের সাথে বয়স্করাও পিছিয়ে নেই।

তবে বর্তমানে নানা রকম অ্যাপের মাধ্যমে আকর্ষণীয় ভিডিও পোস্ট করে ভাইরাল হয়ে যাচ্ছেন প্রায় প্রতিদিনই নানা মানুষ। এই সমস্ত অ্যাপগু’লি ব্যবহার করে মানুষ তার প্রতিভাকে করে তুলেছে আরো আকর্ষণীয়।

সুন্দরভাবে পরিবেশিত ভিডিওগু’লি দেখে মন জুড়িয়ে যায় সকলের। যদিও উপযুক্ত প্রতিভা ছাড়া কোন অ্যাপের মাধ্যমে কিছু করা সম্ভব নয়, সবকিছুর জন্য চাই প্রতিভা।

আজকাল বিভিন্ন সেলিব্রিটিরাও লকডাউনে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাদের ভক্তদের স’ঙ্গে সংযোগ স্থাপনে সমর’্থ হয়েছেন।তারা ফেসবুক ইউটিউবসহ ইনস্টাগ্রাম সব জায়গাতে নিজের প্রতিভা প্রদর্শন করে দর্শকদের মন মাতিয়েছেন বারবার।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায় প্রতিদিন ভাইরাল হয় নানা রকম মজার ভিডিও। ভিডিওগু’লি দেখে হেসে লুটোপুটি হয়ে যান দর্শক।কিছুদিন আগেই একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিল, দুটি মেয়ে নারকেল গাছ ধরে ঝুলছিল,

হঠাৎই ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে তারা সোজা পড়ে যায় নিচে। আবার ভিডিওর আর একটি অংশে দেখা যাচ্ছে, এক ভদ্রলোক জলের মধ্যে জাল ফেলে মাছ ধরার চেষ্টা করছে, কিন্তু ঝাঁকুনির চোটে জালের স’ঙ্গে তিনি নিজেও পড়ে যান জলে।

ভিডিওটি দেখে হেসেই খু–ন দর্শকরা। সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক যুবক একহাতে একটি জেসিবি মেশিন তুলে ধরেছেন। মেশিনটি সম্পর্কে আমা’দের প্রত্যেকেরই জ্ঞান আছে।

বিশাল বড় দানব আকৃতির এই মেশিনটি এক হাতেই তুলে ধরেছেন। ভিডিওটি প্রথমে অবাক করে দিলেও বোঝাই যাচ্ছে এটি শুধুমাত্র মজা পাওয়ার জন্যই বানানো হয়েছে। ভিডিওটি দেখে হেসে হেসে পেটে খিল ধরে গেছে দর্শকদের।

ডিউটি পোস্ট করা হয়েছে “টাইগার প্রো ভাই” নামে একটি অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে। প্রায় আড়াই লাখের উপর মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছে। কমেন্ট করেছেন প্রায় 2000 এর উপর মানুষ।

সম্ভবত এটি কোন সিনেমা’র দৃশ্য নাহলে নিছক মজা করার উদ্দেশ্যেই ভিডিওটি বানানো হয়েছে। ভিডিওটি দেখে হেসে ফেলে ছেন দর্শকরা। কমেন্ট বক্স নানা রকম মজার কমেন্ট এ ভরে গেছে। অনেকে এটিকে মজা হিসেবে নিয়েছেন আবার অনেকে সিরিয়াস ভাবে নানারকম তিক্তকর মন্তব্য করেছেন।

এই ভিডিওটি তাদের অত্যন্ত আনন্দ দিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই এরকম মজার ভিডিও ভাইরাল হয়। সারাদিনের কাজের পর মানুষ এসব ভিডিও দেখেই কিছুটা স্বস্তির আশ্বাস পান।

এইভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সারা পৃথিবী রয়েছে সচল। এখনো পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মানুষ তার মনকে সচল রাখতে পেরেছিলেন। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বাড়িতে বসেই সব কাজ করা সম্ভব হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়াকে কুর্নিশ জানাই তার এই প্রচেষ্টার জন্য।