দুর্দান্ত নেচে নেটিজেনদের মুগ্ধ করলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

ভোটের বাজার নিয়ে গরম হয়ে আছে পশ্চিমব’ঙ্গ। তৃণমূল বিজেপি সিপিএম কংগ্রে’স এর তরজায় মত্ত হয়ে আছে গোটা বাংলা।একের পর এক নেতা তৃণমূল থেকে অন্য দলে চলে গেলেও হার মানতে রাজি নয় তারা এত তাড়াতাড়ি।

একের পর এক নতুন চমকে প্রতিবারই বাংলাকে চমকে দিচ্ছে তৃণমূল। বিজেপি ও বসে নেই। আস্তে আস্তে ধীরে ধীরে দল বাড়াচ্ছে তারা। দু’পক্ষেই দলে দলে তারকারা’ এসে যোগ দিচ্ছেন।

তারকাদের তারকা খচিত আলোয় চকমক করছে ভোটের বাজার। টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী দের মধ্যে শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী অন্যতম। সৌন্দর্য ও অভিনেত্রী তিনি চিরকালই সবার শীর্ষে।

শুধু অভিনয় জগত নয়, ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও তিনি যথেষ্ট চর্চিত। ক্যারিয়ারে জীবন সুখের হলেও তার ব্যক্তিগত বিবাহ বৈবাহিক জীবন মোটেই সুখের নয়।

পরপর দুটি বিবাহ ভেঙে যাওয়ার পর তিনি এবারে সাত পাকের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন রোশন সিংয়ের স’ঙ্গে। কিন্তু এবারেও জল্পনা শোনা যাচ্ছে তার রোশন সিংয়ের স’ঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে গিয়েছে।

খবর পাওয়া যাচ্ছে তিনি আর তার স্বামী আলাদা থাকছেন। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াতেও শ্রাবন্তী তার নিজের নামের পাশ থেকে সিং পদবীটি সরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু আদৌ তাদের বিচ্ছেদ হয়েছে কিনা, এবং এর পেছনে আসল কারণ কি সেই বিষয়ে দুজনেই মুখ খুলতে নারাজ।

সম্প্রতি শ্রাবন্তী যোগ দিয়েছেন রাজনীতিতে। প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির প্রচারে তিনি নেমে পড়েছেন বিজেপিতে। তিনি প্রচার চালাচ্ছেন জোরকদমে। কিন্তু বারবার বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। রাজনীতিতে আসার পর থেকেই একটার পর একটা বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি।

এর আগে দোল উৎসবে তৃণমূল নেতাদের সাথে গানে নাচানাচি করে দর্শকদের ক্ষোভের মুখোমুখি হয়েছিলেন। ভিডিওটি দেখে অনেক মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন।

তাদের বক্তব্য, কর্মী লড়াই করে মর’ছেন এবং নেতারা নিজেদের মতো করে মজা করছেন। যদিও অনেকেই বলেছেন দোল উৎসবে সবাই সবাইকে রঙে রাঙিয়ে দিতে পারে, সব সময় পার্টির কথা ভেবে বিরোধিতা করলে চলবে না।

যদিও একটি ভিডিওতে তিনি এই ব্যাপারে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। তিনি বলেন এই অনুষ্ঠানটি মিডিয়ার করা। তিনি নিজেও জানতেন না এই অনুষ্ঠানে অন্যান্য দলের প্রার্থীরা থাকবেন।

যেহেতু দোল উৎসব সবার জন্য, তাই তিনিও সকলের স’ঙ্গে দোল উৎসব পালন করছিলেন। এখানে রাজনৈতিক কোনো ব্যাপার ছিল না। কিন্তু অনেক মানুষ এটিকে রাজনৈতিক রঙ লাগিয়ে কুৎসা রটানো চেষ্টা করছেন।

আবার মিঠুনের রোড শো বাতিল করার নিয়েও পুলিশের স’ঙ্গে বাকযুদ্ধে জড়িয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু এখন ভোট শেষ। শ্রাবন্তী রয়েছেন ফুরফুরে মেজাজে। এর মধ্যেই ভাইরাল হয়েছিল শ্রাবন্তীর ইনস্টাগ্রামে পোস্ট হওয়া একটি ফটো,

যেখানে দেখা যাচ্ছে শ্রাবন্তী একজন নব বধু সাজে সিঁদুর পরে তার নিজের একটি ফটো পোস্ট করেছিলেন। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, শ্রাবন্তী নিজেই নিজের মত নাচ করছেন।

প্রথমে অবাক লাগলেও ভিডিওটি ভাল করে দেখলে বোঝা যায় তিনি কারোর কাছ থেকে ইনস্ট্রাকশন নিয়ে নাচের প্র্যাকটিস করছেন। সম্ভবত শ্রাবন্তীর আবার নতুন কোন সিনেমা রিলিজ ’হতে যাচ্ছে এবং সেই কারণেই তার এই প্র্যাকটিস।

রাজনীতি ও অভিনয় দুটোকেই সমানতালে চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। তার এই শক্তিশালী মনোভাবের প্রশংসা করেছেন জনতা। শুধু তাই নয়, ব্যক্তিগত জীবনে বার বার আঘাত সত্ত শ্রাবন্তী তার ছেলেকে মানুষ যেমন করেছেন তেমনি অভিনয়কে পেশা হিসেবে নিজের জীবনকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন।

তার হার না মানা মনোভাবের প্রশংসা করেছেন সবাই। ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে গ্রীন বাংলা টিভি নামে এক অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে। প্রায় 50 হাজারের মতো মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছে।

200 জনের মত মানুষ কমেন্ট করেছেন ভিডিওটিতে। প্রত্যেকেই শ্রাবন্তীর শক্তিশালী মনোভাবের প্রশংসা করেছেন। এমনকি রাজনীতির মধ্যে তিনি ছিলেন অটুট ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে সিমি খোকন ব্লগস নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে।

হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছে। শ্রাবন্তির এই ভিডিওটি দেখে নানাজনে নানা মন্তব্য করেছেন। অনেকেই বলেছেন করোনার সময় শ্রাবন্তীর উচিত মানুষকে সাহায্য করা।

আবার অনেকে শ্রাবন্তী কে সমর’্থন করে ভিডিওটির প্রশংসা করেছেন। এমনকি রাজনীতির মঞ্চেও তিনি ছিলেন অটুট। তিনি যেন তাঁর জীবন এই ভাবেই

সমস্যা বাধাকে অতিক্রম করে এগিয়ে যেতে পারেন এই আশাই করি আমর’া। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এভাবেই আমর’া আমা’দের প্রিয় সেলিব্রিটির রোজনামচা জানতে পারি। শুধু তাই নয় সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনেকণ আমি শিল্পী তাদের প্রতিভাকে বিশ্বের সামনে আনতে সক্ষম হয়েছেন এবং সফল হয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ার এই প্রচেষ্টাকে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় স’ঙ্গে যুক্ত প্রত্যেকটি মানুষকে জানাই কুর্নিশ। তার জন্য সব সময় এইভাবে এগিয়ে যেতে পারেন এই আমা’দের প্রার্থনা।