‍‍`ঘর ভাঙলেও আমরা বন্ধু আছি এবং থাকব‍‍`

ঘর ভেঙে যাচ্ছে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির। তবে বিচ্ছেদের কারণে কেউ যাতে মাহিকে ভুল না বোঝেন, তা নিয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন এই তারকার স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপু। এছাড়া তাদের দু’জনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সবসময় বজায় থাকবে বলেও জানান তিনি।

অপু ও মাহি আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও এখনো তাদের বিচ্ছেদের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়নি। তবে শিগগিরই ডিভোর্সের আইনি প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানান তারা।

মাহির সঙ্গে বিচ্ছেদ প্রসঙ্গে প্রথমে কিছু বলতে চাননি অপু। পরে তিনি বলেন, ‘ছয় মাস ধরে আমরা বিচ্ছেদ ঠেকানোর চেষ্টা করেও পারিনি।

দুই পরিবার মিলে বিচ্ছেদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছি। আমরা পরস্পরের প্রতি সম্মানের জায়গাটা রেখে আলাদা হয়ে যাচ্ছি। তবে এখনো আমাদের বিচ্ছেদ হয়নি। শিগগিরই আইনগত প্রক্রিয়া শুরু হবে। ’

বিষয়টি নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা না করার অনুরোধ জানিয়ে অপু বলেন, ‘আমাদের এই সম্পর্ক শেষ হয়ে যাওয়ার বিষয় নিয়ে কেউ ভুল ব্যাখ্যা করবেন না প্লিজ। মাহিকেও ভুল বুঝবেন না। সংসার না হতেই পারে, তাই বলে আমরা যেন কাউকে দোষারোপ না করি। আমরা বন্ধু ছিলাম, আছি এবং থাকব। ’

এর আগে বিচ্ছেদের বিষয়টি ইঙ্গিত দিয়ে শনিবার (২৩ মে) দিনগত রাতে ফেসবুকে শ্বশুরবাড়ির প্রতি ক্ষমা চেয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন মাহি। এরপর তিনি নিজেই বিচ্ছেদের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

২০১৬ সালের ২৪ মে মাহিয়া মাহির বিয়ে হয় সিলেটের মাহমুদ পারভেজ অপুর সঙ্গে। দুই পরিবারের সম্মতি হুট করে বিয়ে করেন তারা। তবে দাম্পত্য জীবনের পাঁচ বছরের মাথায় মাহি তার বৈবাহিক সম্পর্ক ছিন্ন করলেন।

সোনালীনিউজ