সেসব জেলায় লকডাউনের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে কঠোর লকডাউনের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসংগে এসব জেলায় সচেতনতা বৃদ্ধিতে জোর দিয়েছেন তিনি।

সোমবার (৩১ মে) মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর এই কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সীমান্তের জেলাগুলোতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে, যা উদ্বেগজনক। এই জেলাগুলোতে করোনা ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব লকডাউন দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

জাহিদ মালেক বলেন, কোন কোন জেলায় লকডাউন দেওয়া হবে কেবিনেট ডিভিশন এটা নিয়ে কাজ করছে। তবে সেসব জেলায় এখন আমের ব্যবসা চলছে। তাই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে কখন দেওয়া হবে।

করোনার টিকার বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চাইনিজ টিকা আসবে মোট দেড় কোটি। প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে তিন মাসে আসবে এই টিকা। এই টিকা প্রথমেই দেওয়া হবে মেডিকেল শিক্ষার্থীসহ সব সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের। এর পর বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘আজ ফাইজারের যে টিকা আসবে, তা যাদের রেজিস্ট্রেশন আছে তাদের অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে দেওয়া হবে।’

রাশিয়া থেকে জিটুজি পদ্ধতিতে টিকা আসবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘উৎপাদনের প্রস্তাবও আমরা দিয়েছি। তারাও দিয়েছে। একটি সময় লাগবে। টিকা উৎপাদনের বিষয়ে অবকাঠামোগত সুবিধাও নিশ্চিত করতে হবে। রাশিয়া সবকিছু দেখেশুনে সংযোজন ও বিয়োজন করে সিদ্ধান্ত নেবে।’