এবার ফেসবুক, ইউটিউবের নিবন্ধন চায় সরকার

ফেসবুক ও ইউটিউবসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোকে নিবন্ধনের আওতায় আনতে চায় সরকার। বুধবার (২ জুলাই) সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত আইনশৃঙ্খলা–সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এ কথা জানান।

মোজাম্মেল হক বলেন, গুগল এবং আমাজন ইতোমধ্যে রেজিস্ট্রেশন করেছে। যারা করেনি তারাও করুক। বারই জবাবদিহি থাকুক।

এসব মাধ্যম ব্যবহার করে গুজব ছড়ানো রোধে এমন পদক্ষেপ জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, অনেকেই ভালো কাজ করছে। কিন্তু কেউ কেউ মিথ্যাচার করে যেটা স্বাভাবিক জীবনযাত্রার জন্য হুমকিস্বরূপ।

তিনি বলেন, একজনের দোষের কারণে পাঁচজন সমালোচিত হয় বা পাঁচজন ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই রেজিস্ট্রেশন হলে অপরাধী জবাবদিহির মধ্যে আসবে। সে জন্য রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে তাদের আইনের আওতায় আনার পরিকল্পনা হচ্ছে। এ ব্যাপারে যাতে ভোগান্তি না হয় সে জন্য বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ মে ও ২৭ মে গুগল ও অ্যামাজনকে ভ্যাট নিবন্ধন দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে দেশের বাইরে থেকে পরিচালিত কোনো সংস্থা প্রথমবারের মতো বিআইএনেএর নিবন্ধন পেয়েছে। এর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান দুটি এখন বাংলাদেশ থেকে প্রাপ্ত রাজস্বতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট দেবে এবং প্রতি বছর শেষে মোট ব্যবসায়িক লেনদেনের হিসাব (রির্টান) জমা দেবে।