১৫ ঘণ্টা পড়ে থাকার পর হিন্দু ব্যক্তির মরদেহ সৎকার করলেন মুসলিম যুবকরা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছিলেন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার গৌরিপুর গ্রামের বিধান চন্দ্র মণ্ডল (৩৭)। মৃত্যুর পর স্ত্রী ছাড়া কেউই এগিয়ে আসেনি তার দেহ সৎকারে।

অবশেষে ১৫ ঘণ্টা পড়ে থাকার পর স্থানীয় সংগঠন ‘সিডিও ইয়ুথ টিমের’ মুসলিম যুবকরা তার মরদেহটি সৎকারের ব্যবস্থা করেছেন।

শুক্রবার (১১ জুন) মরদেহটি সৎকার করা হয়। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) করোনা আক্রান্ত হয়ে নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বিধান চন্দ্র মণ্ডল। স্থানীয়রা এই ঘটনাকে দেখছেন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দৃষ্টান্ত হিসেবে।

এ বিষয়ে সিডিও-এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক গাজী আল ইমরান বলেন, শুক্রবার সকালে আমাকে ফোনে জানানো হয়, বিধান চন্দ্র মণ্ডল বৃহস্পতিবার বিকেলে মারা গেলেও এখনো তার সৎকার হয়নি। পরে সংগঠনের কয়েকজন সদস্যকে নিয়ে আমি সেখানে যাই।

গিয়ে দেখি বিধানের বাড়িতে তার স্ত্রী ছাড়া আর কেউ নেই। তিনি যেখানে মারা গিয়েছিলেন মৃতদেহটি সেখানেই পড়ে ছিল। পরে স্থানীয় হিন্দু ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে বাড়ির পাশে একটি স্থানে তার মৃতদেহটি সমাহিত করা হয়।