রোনালদোর জার্সি বিক্রির হিড়িক

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবং তার সাত নাম্বার জার্সি—এই তিনের সম্মিলন যে খেলাধুলার বাজারকে নাড়িয়ে দিবে, তা অনুমিতই ছিল। হলোও তাই! এরইমধ্যে রেকর্ড পরিমাণে রোনালদোর সাত নাম্বার জার্সি বিক্রি করেছে ইউনাইটেড।

মাঠে নামতে এখনো বেশ কিছু দিন বাকি। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো তার আগেই রেকর্ড গড়ে ফেললেন। শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিক্রি শুরুর প্রথম ১২ ঘণ্টায় প্রায় ৩.২৫ কোটি পাউন্ডের (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩৮৩ কোটি টাকা) জার্সি বিক্রি হয়েছে। এই সময়সীমার মধ্যে আর কোনো প্রিমিয়ার লিগ খেলোয়াড়ের জার্সিই এই পরিমাণে বিক্রিত হয়নি।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে রোনালদো সাত নম্বর জার্সি পরবেন। এই খবর ঘোষণা হওয়ার পর সেই জার্সির রেপ্লিকা বিক্রি শুরু হয়ে যায়। নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার সিটির জ্যাক গ্রিলিশের জার্সি বিক্রির রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে রোনালদোর সাত নম্বর জার্সি বিক্রি।

এদিকে, ভক্তদের অতিরিক্ত চাহিদার মুখে রোনালদোর জার্সি সরবরাহ করতে হিমশিম খাচ্ছে ইউনাইটেড এবং তাদের জার্সি প্রস্তুতকারী অ্যাডিডাস। সিআরসেভেন ভক্তদের মতে জার্সি বিক্রি করেই রোনালদোর পেছনে খরচ হওয়া টাকা তুলে নিতে পারবে ম্যানইউ। তবে সেটা এখনই সম্ভব নয়। রেড ডেভিলসদের জার্সি প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাডিডাসের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, জার্সি বিক্রির মাত্র ১০ শতাংশ পাবে ক্লাব।

শুধু জার্সি বিক্রি নয়, রোনালদোর ম্যানচেস্টারে ফেরার ফলে দলের ব্র্যান্ড ভ্যালুও বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে।

এদিকে, পুরনো ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে নাম লেখানোর পর থেকেই যেন তর সইছিল না। অবশেষে সুযোগও পেয়ে গেলেন। আর তাই নির্ধারিত সময়ের আগেই শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) ম্যানচেস্টারে পা রাখলেন পর্তুগিজ রাজপুত্র।

মাঝে একাধিকবার লন্ডন কিংবা ঐতিহাসিক ওল্ড ট্রাফোর্ডে এসেছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তবে তখন তার গায়ে ছিল অন্য ক্লাব কিংবা দেশের জার্সি। দীর্ঘ এক যুগ পর ম্যনইউর ফুটবলার হিসেবেই প্রত্যাবর্তন হলো তার।

গেল সপ্তাহে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ মুহূর্তে দুটি গোল করে পর্তুগালকে জিতিয়েছিলেন রোনালদো। সেই সঙ্গে আলি দাইয়ীকে টপকে সর্বকালের সেরা গোলদাতাও হয়ে গেছেন। কিন্তু দ্বিতীয় গোলের পর উচ্ছ্বাসের চোটে জার্সি খুলে ফেলেন পর্তুগিজ তারকা, যে কারণে তাকে হলুদ কার্ড দেখতে হয়। আর তাই আজারবাইজানের বিপক্ষে পরের ম্যাচে খেলতে পারবেন না সিআরসেভেন।

তবে পুরনো ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলার জন্য রোনালদো এতটাই উদগ্রীব যে, সময় নষ্ট না করে বেশ কিছুদিন আগেই চলে এলেন পুরনো ডেরায়। জাতীয় দলের অনুমতি নিয়েই শিবির ছাড়েন তিনি। আগামী সপ্তাহ থেকে অনুশীলন শুরুর কথা রয়েছে তার।

আগামী ১১ সেপ্টেম্বর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইপিএল) নিউক্যাসলের বিপক্ষে ম্যাচ রয়েছে ম্যানইউ’র। মনে করা হচ্ছে, সেই ম্যাচেই পরিচিত সেই লাল জার্সিতে দেখা যাবে রোনালদোকে।