গোপনে বিয়ের গুঞ্জন, নিশ্চুপ মাহি

আলোচনায় ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সিনে পর্দা নয়, আলোচনায় তাঁর ব্যক্তিগত জীবন। অন্তর্জালে জোর গুঞ্জন, ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন এ চিত্রনায়িকা। সেই গুঞ্জনে ঘি ঢালছে রাকিব সরকার নামের গাড়ি ব্যবসায়ী এবং গাজীপুরের রাজনীতিকের সঙ্গে মাহির বেশ কিছু ছবি ও মন্তব্য।

আলোচনার শুরু চলতি বছরের জুনে। বিচ্ছেদের খবর জানানোর কয়েক দিন পরেই ১১ জুন রাতে মেহেদিরাঙা হাতে লাল কাতান শাড়িতে মাহি ‘আলহামদুলিল্লাহ’ ক্যাপশন জুড়ে সামাজিক পাতায় ছবি আপলোড করেন। সে সময় গণমাধ্যমে দ্বিতীয় বিয়ের খবর প্রকাশিত হলে মাহির ভাষ্য ছিল এমন, ‘এ সব গুঞ্জন। রাকিব ও আমি ভালো বন্ধু। আমাদের একটা সার্কেল তৈরি হয়েছে। আরেকটা অনুরোধ, এসব বাজে কথা বা গুঞ্জন ছড়াবেন না। আমি ও আমার বন্ধুরা এতে খুব বিব্রত হই।’

এর পর সব চুপচাপ। সম্প্রতি মাহি ফেসবুকে জানান, ১৩ সেপ্টেম্বর ভক্ত ও দর্শককে সারপ্রাইজ দেবেন। সেই সারপ্রাইজ কী, সেই আলোচনায় উঠে আসে রাকিব সরকারের সঙ্গে বেশ কিছু ছবি ও বিয়ে প্রসঙ্গ। দেশের একাধিক গণমাধ্যমে খবরও প্রকাশিত হয়েছে বিয়ের খবর দিয়ে মাহি সারপ্রাইজ দিচ্ছেন কি না, তা নিয়ে।

এ সব আলোচনার মাঝে আজ রোববার সকালে মাহিয়া মাহির সঙ্গে এনটিভি অনলাইনের পক্ষে যোগাযোগ করা হয়। কুশল বিনিময়ের পর বিয়ের প্রসঙ্গ তুললে মাহি জানান, তিনি গাড়ি পার্ক করছেন। সেটা করে নিজেই এই প্রতিবেদকের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মাহির সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও সাড়া দেননি তিনি।

এদিকে, যাঁকে ঘিরে মাহিকে নিয়ে বিয়ের গুঞ্জন, সেই রাকিব সরকারের ফেসবুক আইডি ঘুরে মাহির সঙ্গে একাধিক ছবি দেখা গেছে। যদিও বেশির ভাগ ছবিতে মাহিকে সরাসরি বা স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে না। একটি স্ট্যাটাসে রাকিব সরকার মাহির ছবির নিচে মন্তব্য করেছেন, ‘কে তুমি?’ মাহি উত্তরে লিখেছেন, ‘বউ’।

এ সব প্রসঙ্গে রাকিব সরকারের মুঠোফোনে এনটিভি অনলাইনের পক্ষে যোগাযোগ করা হলেও সাড়া দেননি তিনি।

চলতি বছরের ২৩ মে স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে পাঁচ বছরের সংসারজীবনের ইতি টানছেন বলে ফেসবুকে জানান মাহি।