ভারতে দিনে গড়ে ৮০ হ’ত্যা, ৭৭ ধ’র্ষণ

ভারতের প্রতিদিন গড়ে ৮০টি হ’ত্যা ও ৭৭টি ধ’র্ষণের ঘটনা ঘটছে। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দেশটির জাতীয় অপরাধ রেকর্ডস ব্যুরোর (এনসিআরবি) বরাতে এনডিটিভি এমন খবর দিয়েছে।

২০২০ সালে প্রতিদিন গড়ে ৮০টি হ’ত্যাকাণ্ড ঘটেছে ভারতে। অর্থাৎ গত বছর দেশটিতে মোট ২৯ হাজার ১৯৩টি হ’তাহতের ঘটনা ঘটেছে। এদিক থেকে সবার শীর্ষে আছে উত্তর প্রদেশ।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে বছরে প্রাণহানির সংখ্যা এক শতাংশ বেড়েছে। ২০১৯ সালে ভারতে ২৮ হজার ৯১৫টি হ’ত্যাকাণ্ড ঘটেছিল। অর্থাৎ বছরে গড়ে প্রতিদিন ৭৯টি হত্যাকাণ্ড হয়েছে।

রাজ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রা’ণহানি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। সেখানে গত বছর তিন হাজার ৭৭৯ জন মানুষ নি’হত হয়েছেন। এরপর বিহারে তিন হাজার ১৫০টি, মহারাষ্ট্রে দুই হাজার ১৬৩টি, মধ্যপ্রদেশে দুই হাজার ১০১টি ও পশ্চিমবঙ্গে এক হাজার ৯৪৮টি হ’ত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

২০২০ সালে দিল্লিতে ৪৭২টি হ’ত্যার ঘটনা ঘটেছে। ভারতে গত বছর গড়ে প্রতিদিন ৭৭ জন নারী ধ’র্ষণের শিকার হয়েছেন। বছরে দেশটিতে ধ’র্ষণের শিকার হয়েছেন ২৮ হাজার ৪৬ জন। গেল বছর দেশজুড়ে নারীর বিরুদ্ধে তিন লাখ ৭১ হাজার ৫০৩টি স’হিংসতার ঘটনা ঘটেছে। তবে নারীর বিরুদ্ধে স’হিংসতা আট দশমিক তিন শতাংশ কমেছে।

২০১৯ সালে ভারতে নারীর বিরুদ্ধে চার লাখ পাঁচ হাজার ৩২৬টি স’হিংসতার ঘটনা ঘটেছিল।

গেল বছর নারীর বিরুদ্ধে স’হিংসতার মধ্যে ২৮ হাজার ৪৬টি ছিল ধ’র্ষণের ঘটনা। এমন এক সময় ভারতে এসব অপরাধ সংঘটিত হয়েছে, যখন মহামারি করোনা নিয়ন্ত্রণে দেশটিতে লকডাউন চলছিল।

গত বছর ভারতে সবচেয়ে বেশি ধ’র্ষণের ঘটনা ঘটেছে রাজস্থানে, পাঁচ হাজার ৩১০টি। এরপর উত্তরপ্রদেশে দুই হাজার ৭৬৯টি, মধ্যপ্রদেশে দুই হাজার ৩৩৯টি ও মহারাষ্ট্রে দুই হাজার ৬১টি ধ’র্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

২০২০ সালে প্রতি লাখে ৫৬ দশমিক পাঁচ জন নারী স’হিংসতার শিকার হয়েছেন। আগের বছর য ছিল ৬২ দশমিক তিন শতাংশ। স্বামী কিংবা স্বজনদের নৃ’শংসতার শিকার হওয়ার ঘটনায় গত বছর এক লাখ এগারো হাজার ৫৪৯টি মা’মলা হয়েছে। আর অপহরণ ও জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে ৬২ হাজার ৩০০টি। এছাড়া তিন হাজার ৭৪১টি ধ’র্ষণ চেষ্টার ঘটনাও ঘটেছে।

সূত্রঃ সময় নিউজ টিভি