মারতে রাজি, মরতে রাজি না: পরীমনি

সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি। গত ১ সেপ্টেম্বর মাদক মামলায় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন পরীমনি। তিনি নাকি মারতে রাজি, মরতে রাজি না। এমনটাই জানালেন মঙ্গলবার সন্ধ্যায়। অভিনেত্রী তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে কিছু লাইন শেয়ার করেছেন। সেখানেই আছে এমন কথা।

ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে পরীমনি লেখেন, ‘টেন এর পরে আমি তো আর গুনতে পারি না/ডাইনে বামে কে যে প্রেমিক চিনতে পারি না/প্রেমের মরা সে তো নাকি জলে ডোবে না/আমি প্রেম করতে রাজি/মারতে রাজি/মরতে রাজি না।’

পরীমনির লেখা স্ট্যাটাসের লাইনগুলো মূলত দেশের একমাত্র সঙ্গীত ভিত্তিক চ্যানেল গান বাংলার নির্বাহী ও কণ্ঠশিল্পী কৌশিক হোসেন তাপসের।প লাইনগুলো লিখে পরীমনি লিখেছেন, ‘কপিরাইট তাপস দ্য বস’। পরীমনির সেই পোস্ট আবার শেয়ারও করেছেন তাপসও তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে।

সম্প্রতি পরীমনি তার বাসা পরিবর্তন করেছেন। অর্থাৎ নতুন ফ্ল্যাটে উঠেছেন অভিনেত্রী। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) চারটি ছবি পোস্ট করে সে কথা জানিয়েছেন পরীমনি। অভিনেত্রী ছবিগুলো পোস্ট করেন ‘মাই সুইট হোম’ নামের অ্যালবামে। ছবিতে ঘরের যে যে অংশ দেখা যাচ্ছে, সেগুলো সুন্দর করে গোছানো। পরীমনিকেও বেশ উচ্ছ্বসিত দেখাচ্ছিল সেই ছবিগুলোতে।

ছবি গুলো পোস্ট করে পরীমনি সেই ক্যাপশনে ইংরেজিতে লিখেছেন, ‘লাভ দ্যা লাইফ ইউ লিভ, লিভ দ্যা লাইফ ইউ লাভ।’ যার বাংলা অর্থ দাঁড়ায়, ‘যে জীবন যাপন করছ তাকে ভালোবাসো। যে জীবন ভালোবাসো সেই জীবন কাটাও।’ এই লাইনটি মূলত খ্যাতিমান জ্যামাইকান সংগীতশিল্পী বব মার্লের।

এরই মধ্যে নতুন উদ্যমে কাজেও ফিরেছেন পরীমনি। তরুণ নির্মাতা ইফতেখার শুভর ‘মুখোশ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে কাজে ফিরেছেন তিনি। গত কয়েকদিন আগেই চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন গিয়াসউদ্দীন সেলিমের নতুন ওয়েব ফিল্ম ‘গুনিন’-এ। অক্টোবরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শুরু হবে ছবির শুটিং। এছাড়া ‘বায়োপিক’ নামে একটি সিনেমার দৃশ্যধারণের কথা আছে। অভিনয় করবেন প্রীতিলতা নামের সিনেমাতেও। সব মিলিয়ে আগামী দিনগুলোতে কাজে ব্যস্ত সময় পার করবেন পরীমনি।