অনুভূতিটা আমি হুট করেই প্রকাশ করতে পারবো না : পরীমণি

অবশেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। কারাবাসের পর এই প্রথম সংবাদ

সম্মেলনে কথা বলেছেন তিনি। তবে এটা তার ব্যক্তিগত কিংবা কারাবাস-জামিন বিষয়ে নয়,

একেবারেই সিনেমাকেন্দ্রিক আয়োজন। আজ শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) এফডিসির জহির রায়হান

কালার ল্যাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ‘প্রীতিলতা’ সিনেমা’র টিম। এতে উপস্থিত ছিলেন

পরীসহ সিনেমাটির সংশ্লিষ্টরা। কালো শাড়ি, খোঁপায় ফুল, হাতভর্তি কাঁচের চু’রি আর কপালের ছোট্ট টিপে পরীমণির লুক উপস্থিত সকলের নজর কেড়েছে। তাকে বেশ প্রফুল্ল দেখাচ্ছিলো।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যের শুরুতে পরীমণি বলেন, ‘প্রীতিলতাকে নিয়ে কি আমা’র বলার কথা? আমা’র তো দেখানোর কথা। প্রীতিলতাকে কতটুকু ধারণ করতে পারলাম, কী’ভাবে পারলাম সেই জবাব আমি পর্দায় দিতে চাই। প্রীতিলতা যেমন তার মায়ের কাছে আশীর্বাদ চেয়েছে, আমিও সবার কাছে আশীর্বাদ চাই। যাতে প্রীতিলতাকে সঠিকভাবে আমা’র মধ্যে ধারণ করতে পারি।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রীতিলতা আমা’র কাছে এমন একটা অনুভূতি, যেটা আমি হুট করেই প্রকাশ করতে পারবো না। প্রীতিলতাকে ব্যাখ্যা করার জন্যই আমাদের এই জার্নিটা। আম’রা একটা সিনেমা বানাচ্ছি, সেখানে আমি প্রীতিলতার চরিত্রে নিজেকে তুলে ধরছি। সবাইকে অনুরোধ করবো, আমাদের এই জার্নিটার সাথে থাকুন। অবশ্যই আম’রা সুন্দর কিছু দেখাতে চাই।’

প্রসঙ্গত, ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা সংগ্রামে প্রথম নারী শহীদ বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার। আজ তার আত্মহুতি দিবস। তাকে নিয়ে নির্মিত হচ্ছে ‘প্রীতিলতা’ সিনেমা। এতে নাম ভূমিকায় অ’ভিনয় করছেন পরীমণি। রাশিদ পলা’শের পরিচালনায় গত বছরের শেষের দিকে সিনেমাটির দৃশ্যধারণের কাজ শুরু হলেও এখনো বেশ কিছু দৃশ্যধারণ বাকি রয়েছে। খুব শীঘ্রই শুটিংয়ে অংশ নিবেন পরীমণি।

‘প্রীতিলতা’ সিনেমাটির চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন গো’লাম রাব্বানী। এর পাণ্ডুলিপি উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। কস্টিউম ডিজাইনার হিসেবে রয়েছেন বিবি রাসেল।