বিকাশের ‘জিনের বাদশা’, যা বলল পুলিশ

বিকাশের ‘জিনের বাদশাসারা দেশ জুড়ে মোবাইল ব্যাংকিং অর্থ লেনদেনে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে মোবাইলে ফোনে বিকাশে অ্যাকাউন্ট করে দ্রুত টাকা লেনদেনের অন্যতম মাধ্যম বিকাশ। কিন্তু এই মাধ্যমটির ব্যবহার প্রতিনিয়ত প্রতারণার হার বাড়ছে। নতুন কৌশলে মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে কিছু চক্র। এই প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে অনেক মানুষ নিঃস্ব হয়ে গেছেন।

এসব প্রতারণার কবল থেকে নিজেকে কিভাবে নিরাপদ রাখবেন, সে বিষয়ে বাংলাদেশ পুলিশ তাদের ফেরিফাইড পেইজে পরামর্শ দিয়েছেন। সেগুলো পাঠকদের জন্যে তুলে ধরা হলো :

‘মাঝরাতে আপনি গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন। এমন সময় হঠাৎ আপনার মোবাইল ফোনে অপরিচিত একটি নম্বর থেকে কল আসবে। কিছুটা মোলায়েম, কিছুটা কর্তৃত্বপূর্ণ কণ্ঠে এক ধরণের ঘোর লাগা সুরে আপনার সাথে কথা বলবে। নিজেকে জিনের বাদশা বলে পরিচয় দিবে। বিষয়টি কাউকে না জানাতে নির্দেশ দিবে। কাউকে জানালে ছেলে-মেয়ের ভয়ংকর ক্ষতি/অমঙ্গল হবে মর্মে ভয় দেখাবে। তারপর আপনাকে কোন গুপ্তধনের সন্ধান দিবে মর্মে হাদিয়া বাবদ কিছু টাকা বিকাশ করতে বলবে।

যদি কেউ বিকাশের মাধ্যমে হাদিয়া পাঠাতে শুরু করে এবং সেটি চালিয়ে যায়, তাহলে এভাবে কয়েকবার টাকা পাঠানোর পর এক সময় তাকে গুপ্তধন নেয়ার জন্য বিশেষ কোন জায়গায় যেতে বলবে। টার্গেট যদি সেই ফাঁদে পা দেয় তাহলে তাকে সেখান থেকে প্রতারকের সুবিধাজনক কোন স্থানে নিয়ে গিয়ে বন্দি করে ফেলে। তারপর ভিকটিমকে বেঁধে রেখে নানারকম শারীরিক নির্যাতন করে এবং তার মোবাইল থেকে তার পরিবারের সদস্যদেরকে কল করে মোটা অংকের মুক্তিপণ দাবি করে।

x