পরীক্ষা ছাড়াই আসতে পারে যেসব শিক্ষার্থীদের পাশের সিদ্ধান্ত

মহামারী করোনা ভা’ইরাসের কারনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে প্রায় পাঁচ মাস যাবত।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে শুরু হলেও সর্বশেষ ঘোষণা অনুযায়ী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ থাকবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত, আটকে আছে এসএসসি পরীক্ষাও।

তবে ৩১ আগস্টের পর ছুটি বাড়বে কিনা সে ব্যাপারে এখনও কোনো কিছুই জানায় নি শিক্ষামন্ত্রণালয়।

সরকারের পক্ষ থেকে স্কুলের শিক্ষার্থীদের স্বার্থ রক্ষার্থে টেলিভিশনে ক্লাসের ব্যবস্থা চালু হলেও কিছু শিক্ষার্থী এখনও রয়েছে এর বাইরে।

দেশের শিক্ষার এই সঙ্কট কাটাতে দ্রুতই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ভাবনাও রয়েছে সরকারের এমন কথাও জানা গিয়েছে।কিন্তু কবে নাগাদ খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান?

এত লম্বা সময় ধরে শিক্ষার্থীরা পড়ালেখার বাইরে থাকার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা যেতে পারে সেই মর্মে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশে পরীক্ষা উন্নয়ন কমিটি ৩৯ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে।

প্রতিবেদনের গুরুত্বপূর্ণ সুপারিশের মধ্যে রয়েছে যদি সেপ্টেম্বরে স্কুল খুলে দেয়া হয় তাহলে সীমিত আকারে ১০০ নম্বরের পরীক্ষা নেয়া হবে।

বন্ধ যদি আরও এক মাস বাড়ে অর্থাৎ অক্টোবর পর্যন্ত গড়ায় তাহলে প্রতি বিষয়ে ৫০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা নেয়া হবে।

এছাড়া যদি নভেম্বরেও স্কুল খোলা না হয় তাহলে কোনো রকম পরীক্ষা ছাড়াই পরবর্তী ক্লাসে চলে যাবে শিক্ষার্থীরা। এক্ষেত্রে অবশ্য আগের বছরের মৌলিক

বিষয়গুলো যুক্ত করা হতে পারে পরবর্তী বছরের সিলেবাসে।এদিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মাহবুব হোসেন জানিয়েছেন এই সুপারিশ প্রাপ্তির ব্যাপারে।

পরীক্ষা উন্নয়ন কমিটির এই সুপারিশ গুরুত্বের সাথে দেখছেন বলেও জানান মাহবুব হোসেন। তিনি বলেন, ‘’সেপ্টেম্বরে খুলতে পারলেকী করব, অক্টোবরে খুলতে পারলে কী করব, নভেম্বরে খুলতে পারলে কী করব এটা ওনারা আমাদেরকে একটা ড্রাফট দিয়েছেন।

তাদের মতামতকে আমরা গুরুত্বের সাথেই দেখছি।

এখন যেহেতু সেপ্টেম্বরের কাছাকাছি চলে এসেছি তাই বাস্তবতার নিরিখেই আমরা পর্যালোচনা করব।‘’সূত্রঃ সময় অনলাইন

x