মে’য়ে হওয়ায় স্ত্রী’’কে ছু’রিকাঘাতে হ’ত্যার পর মা’রা গেলেন স্বামীও

জামালপুরের দেও’য়ানগঞ্জ উপ’জে’লায় কন্যাসন্তান হওয়ায় স্ত্রী’’কে উপর্যুপরি ছু’রিকা’ঘাতে হ’ত্যা’ ক’রে স্বামী। এরপর বিষপানে আ’ত্ম’হ’ত্যা করেছেন স্বামীও। দেওয়ানগঞ্জ উপজে’লার স”দর ইউনিয়নের খড়মা খানপাড়া তেলি’পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, একই ইউনিয়নের গামা’রিয়া দক্ষিণ’পাড়া গ্রামের জয়’নাল আবেদী’নের ছে’লে খোরশে’দ আ’লমের (৩২) সঙ্গে ৪ বছর আগে রুবিনার (২৫) বি’য়ে হয়। রুবি’না খড়মা দাখিল মাদ্রা’সায় সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত লেখা’পড়া করে ‘ঢাকায় স্বা’মীর সঙ্গে পোশা’ক কর্মীর কাজ ক’রতেন।
নি’হতের বাবা ইদ্রিস আলী জানান, বি’য়ের পর যৌ’তু’কের জন্য তার মে’য়েকে নি’র্যা’তন করেছে তার স্বামী। ৪০ দিন আগে তার একটি কন্যাসন্তান হয়।

কন্যা’সন্তা’ন হওয়ার পর প্রায়ই বিভি’ন্ন ভাষায় গা’লিগা’লাজ ও নি’র্যাতন করে খোরশেদ। রুবিনার স্ব’জনরা জানান, কন্যা’সন্তান প্রসবের পর থে’কেই রুবিনা তার পিতার বাড়ি’তে অবস্থান করেছে। রোববার রাতে রুবি’নার বাবার বা’ড়িতে খাবার খায় খোরশেদ। এ সময় কাছে পেয়ে রুবিনার পেটে উ’পর্যুপরি ছু’রিকাঘাত করে সে।
পরে স্বামী খোরশেদ আলম বিষ’পানে আ’ত্মহ’ত্যা’র চেষ্টা করে। ছু’রি দিয়ে আ’ঘা’ত ও বি’ষ’পা’নের দৃ’শ্যটি খো’রশেদ নি’জেই ভিডি’ওচিত্র ধারণ করে।গুরুত’র আ’হত রুবিনা ও খোরশেদ’কে দেও’য়ানগঞ্জ স্বাস্থ্য কম’প্লেক্সে নেয়া হয়। তাদের অবস্থা আ’শ’ঙ্কাজনক থাকায় চিকিৎসকরা ময়’মনসিংহ মে’ডিকেল কলেজ হাস’পাতা’লে প্রেরণ করেন।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থা’য় মঙ্গ’লবার ভোর ৪টার দিকে রু’বিনা মা’রা যান। এরপর বুধ’বার মা’রা যান খো’রশেদ।দেওয়া’নগঞ্জ মডেল থা’নার ওসি এমএম ময়নুল ইস’লাম জানান, রুবিনা ও খোর’শেদ আল’মের লা’শ’ ময়ম’নসিংহ মেডি’কেল কলে’জে ময়নাত’দন্ত হয়েছে। এ ব্যাপা’রে মা’ম’লা হয়েছে।

x