দাউদ ইব্রাহিমকে ড্রেসিং রুম থেকে বের করে দিয়েছিলেন কপিল দেব

১৯৮৬ সালে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আগে ভারতীয় ড্রেসিংরুমে ঢুকে পড়েছিল আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিম। কিন্তু কপিল দেব কোনওভাবেই তাঁকে স্বাগত জানাতে রাজি ছিলেন না। এবং বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় অধিনায়ক কপিল দেবকে ড্রেসিংরুম থেকে বেরিয়ে যেতে বলেছিলেন। বহু পুরনো ঘটনা।

প্রায় ৩৪ বছর পর সেই ঘটনা আরও একবার উঠে এল। সেই সময় ভারতীয় দলের সদস্য ও পরে অধিনায়ক হওয়া দিলীপ ভেঙ্গসরকার পুরনো সেই কথা তুললেন এক অনুষ্ঠানে।

একটা সময় ফিক্সিংয়ের দায়ে জর্জরিত হয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট। ভারতীয় দলকে সেই অন্ধকার সময় থেকে টেনে বের করেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। তবে তাঁরও আগে ভারতীয় দল ও দুর্নীতির মাঝখানে পাঁচিল হয়ে দাঁড়াতেন কপিল দেব। জানালেন ভেঙ্গসরকার।

সেই ম্যাচের একদিন আগে ড্রেসিং রুমে আচমকা ঢুকে পড়েছিল দাউদ। তার পর সে ঘোষণা করে দেয়, ভারতীয় দল যদি পাকিস্তানকে হারিয়ে শারজায় অস্ট্রেলিয়া-এশিয়া কাপ জিততে পারে তা হলে প্রতিটি ক্রিকেটারকে একটি করে টয়োটা গাড়ি উপহার হিসাবে দেওয়া হবে। দাউদের এমন প্রস্তাব শুনেই নাকি তাকে ড্রেসিংরুম থেকে পত্রপাঠ বিদায় করেছিলেন কপিল দেব।

ভেঙ্গসরকর সেদিন বলেন, ‘দাউদকে বিখ্যাত ব্যবসায়ী বলে আমাদের সঙ্গে পরিচয় করিয়েছিলেন অভিনেতা মেহমুদ। দাউদ যখন ভারতীয় ড্রেসিং রুমে ঢুকেছিল, তখন অধিনায়ক কপিল দেব সেখানে ছিল না। সংবাদিকদের সঙ্গে বৈঠকে গিয়েছিল। তার পর কপিল যখন ফিরে আসে তখনও দাউদ ড্রেসিংরুমে ছিল। কপিল অচেনা লোককে দলের ড্রেসিংরুমে দেখেই চটে গিয়েছিল।’

ভেঙ্গসরকার জানিয়েছিলেন, একজদন অচেনা ব্যক্তি ড্রেসিরুমে ঢুকে ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলছে, এই ব্যাপারটা কপিল একেবারেই মেনে নিতে পারেননি। তবে কপিল দেব বেরিয়ে যেতে বললে কোনও কথা না বাড়িয়ে দাউদ চলে যায়। সেই ফাইনাল ম্যাচ অবশ্য ভারত জিততে পারেনি।

চেতন শর্মাকে ছক্কা হাঁকিয়ে জাভেদ মিয়াঁদাদ পাকিস্তানকে ম্যাচ জেতান। তবে সেই ম্যাচে গ্যালারিতে ছিল দাউদ ইব্রাহিম। সেই ম্যাচে দাউদের উপস্থিতির অনেক ছবি এখনও ইন্টারনেটে রয়েছে।

x