বিয়েতে দাওয়াত না দেয়ায় ‘দ’ল’বে’ধে’ ‘হা’ম’লা’

জামালপুরের ইসলামপুরে বিয়েতে দাওয়াত না দেয়ায় বসতবাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে বলে ‘অ’ভি’যো’গ উঠেছে। গত বুধবার বিকেলে উপজেলার গোয়ালেরচর ইউপির মোহাম্মদপুর বালুরচর গ্রামে এ ‘ঘ’ট’না’ ঘটে। বালুচর গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে আক্তার হোসেন গত বছর তার মেয়ে রিক্তাকে পার্শ্ববর্তী পোড়ারচর গ্রামে বিয়ে দেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রতিবেশী লাল বাদশা, মকছেদ, নুর ইসলাম, পাগাল, আব্দুল করিম, আনোয়ার, মশর ও মোশাররফকে দাওয়াত দেয়নি আজাহার আলী। এতে ‘ক্ষি’প্ত’ হয়ে উঠে লাল বাদশারা। একপর্যায়ে ‘ঘ’ট’না’র’ দিন বিকেলে লাল বাদশারা আজাহার আলীর বসতবাড়িতে ‘হা’ম’লা’ চালায়। হামলায় ‘আ’হ’ত’ হয় আজাহার আলীর শিশু ছেলেসহ স্ত্রী রহিমা বেগম, মেয়ে রিক্তা, বাবা আজাহার আলী ও ভাই ময়ের আলী।

গুরুতর আহত রহিমা বেগম এবং ময়ের আলীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ভুক্তভোগী আক্তার হোসেনের অভিযোগ, মেয়ের বিয়েতে দাওয়াত না দেয়ায় বসতবাড়িতে ‘হা’ম’লা’ চালিয়ে মারপিটসহ বিভিন্ন ‘ক্ষ’য়’ক্ষ’তি’ করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ‘হা’ম’লা’কা’রী’রা’ ‘মা’র’পি’ট’ করার পর তাদের লোকজনকে তাদের বাড়িতেই অবরুদ্ধ করে রেখেছিল। পরে ইসলামপুর থানার এসআই মাহমুদুল হকের নেতৃত্বে এক দল পুলিশ এসে ‘উ’দ্ধা’র’ করে।

‘অ’ভি’যু’ক্ত’ লাল বাদশারা তাদের ‘বি’রু’দ্ধে’ আনীত ‘অ’ভি’যো’গ’ অস্বীকার করে বলেন, আমাদের ‘বি’রু’দ্ধে’ অযথা ‘অ’ভি’যো’গ’ করেছে।

এ ব্যাপারে এসআই মাহমুদুল হক বলেন, ‘ঘ’ট’না’স্থ’ল পরিদর্শন করেছি। আহতদের ‘উ’দ্ধা’র করা হয়েছে। আক্তার হোসেন বাদী হয়ে একটি’ ‘অ’ভি’যো’গ’ দিয়েছে। ‘অ’ভি’যো’গ’টি’ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।