বার্সা চায় ৭০ কোটি, তাঁরা মেসির জন্য জমাচ্ছে ৯০ কোটি

ম্যানচেস্টার সিটিতে তাঁর যাওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। বার্সেলোনার সঙ্গে ২০ বছরের সম্পর্কের শেষে ইংল্যান্ডে পেপ গার্দিওলার অধীনে সিটিতেই ক্যারিয়ারের নতুন গল্প লিখবেন লিওনেল মেসি, এমনটাই ভাবছেন সবাই। শোনা যাচ্ছে ইন্টার মিলান, পিএসজির কথাও। ফাঁকে ফোকরে জুভেন্টাস, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নামও এসেছে। কিন্তু এই ক্লাবগুলোর সঙ্গে স্টুটগার্টের নামও যোগ হবে!

বুন্দেসলিগায় গত মৌসুমে অল্পের জন্য অবনমন এড়িয়েছে ভিএফবি স্টুটগার্ট। ভালো মানের একজন ফুটবলার কেনার সামর্থ্য নেই তাদের। অথচ সেই ক্লাবটিই কিনা মেসিকে কিনবে! তা-ও কী! বার্সেলোনা দাবি করছে, মেসিকে পেতে হলে ৭০ কোটি ইউরো দিতে হবে। স্টুটগার্ট এসব ৭০ কোটির ধার ধারছে না, এর সঙ্গে আরও ২০ কোটি বেশিই জোগাড়ের পথে নেমেছে।

এখন পর্যন্ত স্টুটগার্ট কত জোগাড় করতে পেরেছে? এই প্রতিবেদন লেখার সময়ে অঙ্কটা ‘বিশাল’ই—৪৮৯ ইউরো!
স্টুটগার্টের তারকা ফুটবলার বলতে ওরেল মানগালা, নিকোলাস গঞ্জালেস ও সিলাস ওয়ামানগিতুকা। হ্যানোভার থেকে গেছেন ওয়ালদেমার অ্যান্টন, হফেনহাইম থেকে গ্রেগর কোবেল। দুজনই স্টুটগার্টে যোগ দিয়েছেন ৪০ লাখ ইউরোর বিনিময়ে। আর আর্সেনাল থেকে এক বছরের জন্য ধারে খেলতে গেছেন কনস্টানটিনোস মাভরোপানোস। সেই দলেই নাকি এবার খেলবেন মেসি!

এখানে কৃতিত্বটা স্টুটগার্ট সমর্থকদের। বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তির শর্ত অনুসারে ৭০ কোটি ইউরোর রিলিজ ক্লজ দিয়ে তবেই কোনো ক্লাব নিতে পারবে মেসিকে। এমন খবর জানার পর বসে নেই ভিএফবি স্টুটগার্টের ভক্তরা। মেসিকে কিনতে জার্মানির ফুটবল ক্লাবের সমর্থকেরা ৯০ কোটি ইউরো জোগাড়ের চেষ্টা করছে।

এরই মধ্যে তহবিল জোগাড়ের কাজটা শুরু করে দিয়েছে তারা। অবশ্য এত টাকা জোগাড় করেও যদি শেষ পর্যন্ত মেসিকে কিনতে না পারে তাহলে বিকল্প ভাবনাও ভেবে রেখেছে এই সমর্থকেরা। অর্থগুলো খরচ করা হবে কোনো জনকল্যাণমূলক কাজে।

অনলাইনে তহবিল সংগ্রহের ওয়েবসাইট গো ফান্ড মি পেজে ওই সমর্থকেরা স্ট্যাটাস দিয়ে জানিয়েছে, ‘আমরা ভিএফবি সমর্থকেরা লিওনেল মেসির দলবদলের জন্য অর্থ জোগাড় করছি।

যদি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তহবিল জোগাড় না হয় অথবা লিওনেল মেসি অন্য কোনো ক্লাবে চলে যায় তাহলে তহবিল থেকে পাওয়া শতভাগ অর্থ ভিভা কন আগুয়ায় দান করা হবে।’ ভিভা কন আগুয়া হচ্ছে একটা অলাভজনক দাতব্য প্রতিষ্ঠান, যারা সারা বিশ্বের সবার জন্য বিশুদ্ধ পানি নিশ্চিত করার কাজটা প্রতিনিয়ত করে চলেছে।
এখন পর্যন্ত স্টুটগার্ট কত জোগাড় করতে পেরেছে? এই প্রতিবেদন লেখার সময়ে অঙ্কটা ‘বিশাল’ই—৪৮৯ ইউরো!

x