বেগম জিয়ার ফোনে আবেগ আপ্লুত হয়ে কাঁদলেন রিজভী

টেলিফোনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশনা পেয়ে তা দলীয় কোরামে জানাতে গিয়ে আবেগজড়িত কণ্ঠে কেঁদে ফেলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বুধবার (০২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিএনপির অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে এক আলোচনায় বেগম জিয়ার সঙ্গে টেলিফোনে তার কথা হওয়ার বিষয়ে বলতে গিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আবেগে আপ্লুত হয়ে যান তিনি।

এ সময় রিজভী আরো বলেন, তিনি নিজে বেশ কিছু রোগে ভুগছেন বিধায় বেগম জিয়া তাকে পার্টি অফিসে যাওয়া ও দলীয় কার্যক্রমে অংশ নেয়ার বিষয়ে নির্দেশনা দেন।

যে নির্দেশনায় ইতিবাচকভাবে পার্টি অফিসে বেশিক্ষণ থাকতে বারণ ও কোন মিছিলে অংশ না নিতে রিজভীকে নির্দেশ দেন বেগম জিয়া।

এসময় বেগম জিয়া তার ব্যক্তিগত অসুস্থতার কথা মাথায় রেখে এসব নির্দেশনা দেন। এ কথা দলীয় আলোচনায় বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন বিএনপির এই নেতা।

তিনি বলেন, একজন নেত্রীর এমন মাতৃসূলভ আচরণেই বিএনপি টিকে আছে। দলীয় কর্মীসহ দেশবাসী এ কারণেই বিএনপিকে ভালোবাসেন।

এক এগারোর সময় সেনাশাসিত সরকারের করা দুর্নীতির মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাবন্দী দিবস উপলক্ষে এক ভার্চুয়াল আলোচনায় এসব বলেন রিজভী আহমেদ।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আ

লমগীরের সভাপতিত্বে বিএনপি আয়োজিত এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

এছাড়াও

দলের অন্যান্য স্থায়ী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনার সঞ্চালনা করেন শহিদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানী।

x